অনুবাদ সাহিত্য পুরস্কার ২০২১ প্রদান : আজীবন সম্মাননা পেলেন আলম খোরশেদ

  •  
  •  
  •  
  •  

প্রশান্তিকা ডেস্ক : বাংলা ট্রান্সলেশন ফাউন্ডেশন কর্তৃক প্রদান করা হলো ‘অনুবাদ সাহিত্য পুরস্কার-২০২১’। ‘অনুবাদ সাহিত্য পুরস্কার: আজীবন সম্মাননা-২০২১’ বিভাগে পুরস্কৃত হলেন খ্যাতিমান অনুবাদক আলম খোরশেদ। এবং ‘অনুবাদ সাহিত্য পুরস্কার: বর্ষসেরা অনূদিত বই-২০২১’ বিভাগে পুরস্কৃত হলেন অনুবাদক রওশন জামিল তাঁর অনূদিত আলেক্সান্ডার দ্যুমার উপন্যাস ‘কালো টিউলিপ’র জন্য।

গতকাল ৩০শে নভেম্বর ২০২১, মঙ্গলবার, জাতীয় জাদুঘরের কবি সুফিয়া কামাল মিলনায়তনে বিকাল পাঁচটার সময় এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে পুরস্কৃত অনুবাদকদের হাতে আজীবন সম্মাননার জন্য ১লক্ষ ও বর্ষসেরা অনূদিত বইয়ের জন্য ৫০হাজার টাকার অর্থ সম্মানী তুলে দেওয়া হয়। এছাড়াও তাঁদের হাতে ক্রেস্ট, সনদ ও উত্তরীয় তুলে দেন আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলা ট্রান্সলেশন ফাউন্ডেশনের আহ্বায়ক অনুবাদক আনিসুজ জামান। প্রধান আলোচক হিসেবে ছিলেন কথাসাহিত্যিক, কবি ও অনুবাদক মাসরুর আরেফিন। সভাপতিত্ব করেন অনুবাদক অধ্যাপক খালিকুজ্জামান ইলিয়াস। তিনি পুরস্কার নির্বাচন কমিটিরও সভাপতি ছিলেন। স্বাগত বক্তব্যে অনুবাদক আনিসুজ জামান বলেন, একটি দেশের সাহিত্য একই সঙ্গে সমৃদ্ধ ও আন্তর্জাতিক হয়ে ওঠে অনুবাদের মাধ্যমে। এমনকি জ্ঞান-বিজ্ঞান ও ইতিহাস-দর্শনেও পৃথিবী সমৃদ্ধ হয়েছে অনুবাদের মধ্য দিয়ে। তাই, আমরা দেখতে পাই, অনুবাদকর্মকে (ট্রান্সলেশন ইন ও ট্রান্সলেশন আউট উভয় ক্ষেত্রেই) যে জাতি যত বেশি গুরুত্ব দিয়েছে সে জাতি তত বেশি অগ্রসর হয়েছে। তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশের অনুবাদকরা পর্যাপ্ত সামাজিক, সাহিত্যিক ও অর্থনৈতিক স্বীকৃতি পান না। দেশের অনুবাদকদের উৎসাহ প্রদান করতে বাংলা ট্রান্সলেশন ফাউন্ডেশন ‘বর্ষসেরা অনূদিত বই’ ও ‘অনুবাদক আজীবন সম্মাননা’ প্রতি বছর প্রদান করবে। প্রতি বছর প্রকাশিত অনূদিত গ্রন্থ থেকে একটি বইকে পুরস্কৃত করা হবে। এবং একজন অনুবাদককে দেশের অনুবাদ-সাহিত্যে তাঁর সামগ্রিক অবদানের জন্য আজীবন সম্মাননা প্রদান করা হবে। পাশাপাশি একটি অনুবাদ পত্রিকা নিয়মিত প্রকাশিত হবে। ‘

আজীবন সম্মাননা গ্রহণ করছেন অনুবাদক, কথাসাহিত্যিক আলম খোরশেদ।

পত্রিকা যুক্তস্বরের পাঠোন্মোচনে অনুবাদক-লেখক মুম রহমান বলেন, বাংলাদেশে অনুবাদ সাহিত্য নিয়ে নিয়োমিত কোনো পত্রিকা ছিল না। এই পত্রিকাটি নিয়মিত হোক, এই কামনা করি। নবীন ও প্রবীন অনুবাদকদের অনুবাদে সমৃদ্ধ একটি সংখ্যা প্রকাশিত হলো, এই ধারা অব্যাহত থাকুক।

প্রধান আলোচক মাসরুর আরেফিন বলেন, অনুবাদ সাহিত্য নিয়ে বাংলাদেশে প্রত্যাশা অনুযায়ী কোনো কাজ আমরা করতে পারিনি। এখনো অনেক ক্লাসিক সাহিত্য অনুবাদ হতে বাকি আছে। আমরা এই ফাউন্ডেশনের দিকে তাকিয়ে থাকব, সেই সঙ্গে আমি নিজেও সব ধরনের সহযোগিতা করব।

অনুভূতি ব্যক্ত করতে এসে পুরস্কৃত অনুবাদক আলম খোরশেদ বলেন, আশির দশক থেকে টানা কাজ করে যাচ্ছি, কখনো পুরস্কারের কথা ভাবিনি। বাংলাদেশে অনুবাদ করে পুরস্কার পাওয়ার বিষয়টিও কল্পনা করা যায় না। বাংলাদেশে অনুবাদ সাহিত্য যতটা সম্মানের কাজ হওয়া উচিত ছিল ততটা এখনো হয়নি। অথচ আমাদের সাহিত্যের সমৃদ্ধ ও আন্তর্জাতিকীকরণ অনুবাদ সাহিত্য ছাড়া সম্ভবও না।

সভাপতির বক্তব্যে অধ্যাপক খালিকুজ্জামান ইলিয়াস বলেন, আমরা বহুদিন থেকে এ রকম একটি প্লাটফরম প্রত্যাশা করে এসেছি। বাংলাদেশে অনুবাদ সাহিত্য নিয়ে মানুষের আগ্রহ থাকলেও উচ্ছ্বাস খুব কম। তবে এখন তরুণরা উঠে আসছেন, অনুবাদকদের যোগ্য সম্মান তারা দিতে শিখছেন। আমরা এই প্লাটফরমের মধ্য দিয়ে অনুবাদ সাহিত্যের সামগ্রিক অবস্থার উন্নতি ঘটাতে পারি।

অনুষ্ঠানে অনুবাদ সাহিত্য পত্রিকা ‘যুক্তস্বর’র মোড়ক উন্মোচন করা হয় এবং চর্যাপদের গান পরিবেশন করে ভাবনগর ফাউন্ডেশনের সাধুসঙ্গ।

‘ অনুবাদ সাহিত্য পুরস্কার: আজীবন সম্মাননা-২০২১: আলম খোরশেদ
অনুবাদক-লেখক আলম খোরশেদ সম্পাদনা, অনুবাদ ও মৌলিক রচনা মিলিয়ে এ-পর্যন্ত কুড়িটিরও অধিক গ্রন্থ রচনা করেছেন। তাঁর উল্লেখযোগ্য সাহিত্যকীর্তির মধ্যে রয়েছে ভার্জিনিয়া উল্ফের অমর গ্রন্থ A Room of One’s Own-এর অনুবাদ নিজের একটি কামরা, নোবেল-বিজয়ী কবি ভিস্লাভা শিম্বর্স্কার ত্রিশটি কবিতার অনুবাদ, বাংলাদেশের নারীবাদী গল্প-সংকলন কাটা জিহ্বার কথা, মূল স্প্যানিশ ভাষা থেকে অনূদিত বোর্হেস ও বিক্তোরিয়া ওকাম্পোর আলাপচারিতা, ন্‌গুগি ওয়া থিয়োঙ্গ’ওর নাট্যানুবাদ গির্জাবিয়ে, হেনরি মিলারের সর্বশেষ আত্মজৈবনিক রচনা Reflections-এর অনুবাদ ভাবনাগুচ্ছ, সালমান রুশদি রচিত নিকারাগুয়ার ভ্রমণ আখ্যান The Jaguar Smile-এর অনুবাদ, জাদুবাস্তবতার গাথা: লাতিন আমেরিকার গল্প, বোরহেস নাগিব চিনুয়া মার্কেসও অন্যান্যের গল্প ইত্যাদি। বর্তমানে তিনি অনুবাদকর্মের পাশাপাশি চট্টগ্রামে তাঁর নিজের গড়া সংস্কৃতিকেন্দ্র বিস্তার পরিচালনা করছেন।

‘ অনুবাদ সাহিত্য পুরস্কার: বর্ষসেরা অনূদিত বই-২০২১’: রওশন জামিল অনূদিত কালো টিউলিপ (আলেক্সান্ডার দ্যুমার উপন্যাস)
রওশন জামিল দীর্ঘদিন থেকে অনুবাদ করছেন। সেবা প্রকাশনী থেকে বেরিয়েছে তাঁর অসংখ্য অনুবাদগ্রন্থ। নিউইয়র্ক সিটি শিক্ষা দপ্তরের অনুবাদ বিভাগে কাজ করেছেন। লেখাপড়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও সিটি ইউনিভার্সিটি অব নিউইয়র্কে। উল্লেখযোগ্য অনুবাদ গ্রন্থ: আর্নেস্ট হেমিংওয়ের দি ওল্ড ম্যান অ্যান্ড দ্য সি, যুদ্ধের মেয়েরা ও অন্যান্য গল্প। এ ছাড়া জনপ্রিয় ওয়েস্টার্ন সিরিজ ওসমান পরিবারের কল্পকাহিনি। একসময় তিনি সেবা প্রকাশনীর নিয়মিত অনুবাদক ছিলেন। বর্তমানে তিনি বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ টেক্সট অনুবাদ করছেন। কালো টিউলিপ তেমনই এক বই। দি ব্ল্যাক টিউলিপ আলেকজান্ডার দ্যুমার শেষ ঐতিহাসিক উপন্যাস। উপন্যাসটি রওশন জামিল আধুনিক গদ্যে বিশ্বস্ত অনুবাদ করেছেন তিনি। অনুবাদে তিনি মূলানুগ থেকে মৌলিক স্বর তুলে ধরতে সক্ষম হয়েছেন।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশের অনুবাদ সাহিত্য নিয়ে কাজ করার লক্ষ্যে বাংলা ট্রান্সলেশন ফাউন্ডেশন যাত্রা শুরু করেছে। দুটি কাজের মধ্য দিয়ে ফাউন্ডেশনটি আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করছে: অনুবাদ পুরস্কার প্রবর্তন ও প্রদান এবং ‘যুক্তস্বর’ নামে অনুবাদ সাহিত্য পত্রিকা প্রকাশ। প্রতি বছর প্রকাশিত অনূদিত গ্রন্থ থেকে একটি বইকে বর্ষসেরা অনূদিত গ্রন্থ হিসেবে পুরস্কৃত করা হবে। এর অর্থমূল্য পঞ্চাশ হাজার টাকা। এবং একজন অনুবাদককে দেশের অনুবাদ-সাহিত্যে তাঁর সামগ্রিক অবদানের জন্য আজীবন সম্মাননা প্রদান করা হবে। এর অর্থমূল্য এক লক্ষ টাকা।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি। 

বিজ্ঞাপন
0 0 votes
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments