অস্ট্রেলিয়ায় টানা তৃতীয়বার সরকার গঠনের পথে লিবারেল ও কোয়ালিশন

  •  
  •  
  •  
  •  

প্রশান্তিকা ডেস্ক: গতকাল অস্ট্রেলিয়া ব্যাপি সাধারন নির্বাচনের ফলাফলে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ক্ষমতাসীন লিবারেল পার্টি ও কোয়ালিশন আবারো সরকার গঠন করতে যাচ্ছে। প্রথমবারের মতো সরাসরি ভোটে প্রধানমন্ত্রীর আসন অলংকৃত করতে যাচ্ছেন লিবারেল প্রধান স্কট মরিসন। সর্বমোট ১৫১ টি আসনের মধ্যে লিবারেল ৭৫, লেবার ৬৬, গ্রীন ১ ও স্বতন্ত্র দল ৫টি আসন পেয়েছে। লিবারেল পার্টি সম্পূর্ণ সংখ্যাগরিষ্ঠতা থেকে মাত্র ১টি আসন দূরে রয়েছে। তবে বিশেজ্ঞরা বলছেন বাকী ৫টি আসনের মধ্যে লিবারেল তাদের প্রয়োজনীয় একটি আসন বা স্বতন্ত্র থেকেও একটি আসন অনায়াসে পেয়ে সরকার গঠন করবে।

এই নির্বাচনে লিবারেল পার্টি টানা তৃতীয় বারের মতো সরকার গঠন করতে যাচ্ছে। সাবেক লিবারেল প্রধানমন্ত্রী টনি আ্যবোট প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থীর কাছে হেরে গেছেন। সেই সাথে ভবিষ্যতে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসনকে চ্যালেঞ্জ করতে পারবেন না। অন্যদিকে কুইস্নল্যান্ড থেকে বিদ্রোহী পিটার ডাটন জিতে গেছেন। পিটার স্কট মরিসনকে আবারও চ্যালেঞ্জ করে হয়তো লিডারশিপ স্পিল করাতে পারেন। অবশ্য এসব কেবল ভবিষ্যতের আশংকা।

গতকাল রাত পর্যন্ত লেবার প্রধান বিল শর্টেন গনমাধ্যমে কথা বলেননি তবে পরবর্তীতে পরাজয় স্বীকার করে এখনো বক্তব্য দেন।পরাজয় নিশ্চিত হলে তিনি লেবার পার্টির প্রধান থেকে পদত্যাগ করবেন বলে জানান। সেক্ষেত্রে সিডনি ইনার ওয়েস্ট থেকে নির্বাচিত এন্থনী আলবানিজি বা সিডনি থেকে তানিয়া প্লেবারসিক দলের হাল ধরতে পারেন বলে গনমাধ্যম ধারনা করছে। গনমাধ্যমে দুজনই লেবার প্রধান হওয়ার প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।

প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন গতকাল রাতে ওয়েন্টওয়ার্থ হোটেলে তাঁকে দেয়া সংবর্ধনার জবাবে বিরোধী লেবারপার্টি সহ সকলকে ধন্যবাদ জানান। উল্লসিত সমর্থকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, “Tonight is not about me or it’s not even about the Liberal Party,” he said. “Tonight is about every single Australian who depends on their government to put them first.”