আওয়ামী লীগ ঘরে ঘরে চাকরির বদলে দিয়েছে মামলা-হামলা: মির্জা ফখরুল

  •  
  •  
  •  
  •  
বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আওয়ামী লীগ সরকার ঘরে ঘরে চাকরির বদলে দিয়েছে ঘরে ঘরে মামলা আর হামলা। তাই এ সরকার পরিবর্তনের জন্য ধানের শীষের বিকল্প নেই। রবিবার সন্ধ্যায় পঞ্চগড় জেলার দেবীগঞ্জ উপজেলা সদরের দেবদারুতলায় পঞ্চগড়-২ আসনের নির্বাচনী পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, ধানের শীষে শুধু ভোট দিলেই চলবে না, ভোটের দিন সকাল থেকে ভোট কেন্দ্র পাহারা দিতে হবে। আওয়ামী লীগ হারতে চায় না কিন্তু আপনারা ভোট দিলে আগামী ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে নৌকাকে ৩০ হাত পানির নিচে ডুবানো হবে।
মির্জা ফখরুল বলেন, সরকার বলেছিল কৃষকরা পণ্যের নায্যমূল্য পাবেন। বিনামূল্যে সার পাবেন। কিন্তু আমার কৃষকরা কিছুই পাননি। বিএনপি ক্ষমতায় গেলে বেকারদের চাকরির ব্যবস্থা করা হবে। যতদিন চাকরি হবে না কর্মসংস্থান হবে না ততদিন তাদের বেকারভাতা প্রদান করা হবে। দেবীগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সভাপতি আবু তোরাব সরকারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত জনসভায় পঞ্চগড়-২ আসনের বিএনপির প্রার্থী ফরহাদ হোসেন আজাদ, বিএনপি নেতা হাসমত আলী, আব্দুল আজিজ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।
বিএনপির মহাসচিব বলেন, আগামী নির্বাচনে ধানের শীষের বিজয়ের মাধ্যমে বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে। ৩০ ডিসেম্বর সবাইকে ধানের শীষে ভোট দেওয়ার আহ্বান জানিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘এ নির্বাচন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এ নির্বাচনের মাধ্যমে প্রমাণিত হবে, আমরা একনায়কের দেশে থাকবো নাকি গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রে থাকব। এবারের নির্বাচন গণতন্ত্র থাকবে কি থাকবে না তার নির্বাচন।
তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ দেশে এক দলীয় শাসন ব্যবস্থা আনতে চায়, এক ব্যক্তির শাসন আনতে চায়, তারা আমাদের গণতন্ত্রবিহীন করতে চায় কিন্তু দেশের মানুষ তা মেনে নেবে না।
তিনি আরও বলেন, নির্বাচনী প্রচারণায় বাধা দেয়া হচ্ছে, বিএনপি প্রার্থী ও নেতাকর্মীদের ওপর হামলা করা হচ্ছে। কিন্তু সারা দেশে ধানের শীষের যে গণজোয়ার শুরু হয়েছে তাতে সুনামি হয়ে যাবে। বাঁধ ভেঙে গেলে তা আর আটকানো যায় না। এবার ধানের শীষের গণজোয়ারে নৌকা ভেসে যাবে। আওয়ামীলীগ চক্রান্ত করছে কেমন করে ধানের শীষের গণজোয়ার আটকে দেয়া যায়। তাই আপনারা সাবধান থাকবেন। মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমরা চেষ্টা করছি জনগণকে জাগিয়ে তুলতে। কারণ এ রাষ্ট্র তাদের, তাদের সব অন্যায়-অবিচার-অত্যাচারের বিরুদ্ধে জেগে উঠতে হবে। নিজেদের অধিকার আদায় করতে হবে। আমার বিশ্বাস, এ লড়াইয়ে আমরা জয়ী হবো।
পথসভায় হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের (সংখ্যালঘুদের) নানা রকম সমস্যার জন্য আলাদা একটি মন্ত্রণালয় গঠন করার ঘোষণা দেন তিনি। পথসভায় বিএনপি মহাসচিব ফখরুল ইসলাম আলমগীর ফরহাদ হোসেন আজাদের হাতে একগুচ্ছ ধানের শীষ তুলে দিয়ে বিএনপি প্রার্থী হিসেবে পরিচয় করিয়ে দেন এবং উপস্থিত সকলকে ধানের শীষ প্রতীকে ভোট দেওয়ার আহ্বান জানান। একইসাথে দলীয় নেতাকর্মীদের ধানের শীষে ভোট দেয়ার পাশাপাশি ভোট চুরি ঠেকাতে প্রতিটি ভোট কেন্দ্র পাহারা দেয়ার নির্দেশ দেন বিএনপি মহাসচিব। জনসভার মঞ্চটি বার বার ভেঙ্গে দেয়ায় ট্রাক্টরের ওপর মঞ্চ তৈরি করে বক্তব্য দেন বিএনপি মহাসচিব। পথসভায় বোদা ও দেবীগঞ্জ উপজেলার হাজার হাজার বিএনপি নেতাকর্মী ও সমর্থক যোগ দেন।