আজ অভিনেতা অর্ক দাশগুপ্তের জন্মদিন

  •  
  •  
  •  
  •  

প্রশান্তিকা রিপোর্ট: প্রশান্ত পাড়ের দ্যুতিময় বাঙালী তরুণ অভিনেতা অর্ক দাশগুপ্ত সিডনিতে বসবাস করেন। বাবা প্রখ্যাত কলামিস্ট, লেখক ও কবি অজয় দাশগুপ্ত ও মা দীপা দাশগুপ্তের একমাত্র সন্তান। পড়াশুনা ও বেড়ে উঠা সিডনিতেই। থিয়েটারে হাতে খড়ি হলেও অস্ট্রেলিয়া টেলিভিশনের প্রিয় মুখ অর্ক অভিনয়ও করেছেন নামকরা হলিউড সিনেমায়, পাইপ লাইনে রয়েছে আরও সব ছবি। মাত্র দু’মাস আগে তাঁর অভিনীত সিনেমা ‘মুলান’ মুক্তি হওয়ার কথা ছিলো। করোনার প্রাদুর্ভাবের কারণে সকল সিনেমা হল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় সেটা আর আলোর মুখ দেখেনি। তবে জীবনযাত্রা স্বাভাবিক হয়ে এলে অতি শীঘ্রই সেটা মুক্তি পাবে বলে অর্ক জানালেন।
দ্য মুলান সম্পর্কে অর্ক বললেন, “এটি হলিউডের এবং ডিজনির ছবি, এর কিছু শুটিং করা হয়েছিলো নিউজিল্যান্ডে। আমার সহ অভিনেতাদের মধ্যে ছিলেন নিউ ইওফি, জেট লী এবং ডনি ইয়েন প্রমুখ।

অর্ক দাশগুপ্ত, রেড কার্পেটে।

হলিউডের ছবি ‘দ্য লায়নে’ নিকোল কিডম্যান এবং স্লাম ডগ মিলিয়নিয়র খ্যাত ডেভ প্যাটেল ছিলো অর্ক’র সহ অভিনেতা। এছাড়া প্রখ্যাত ভারতীয় ছবি ‘আন ইন্ডিয়ান’ ছবিটিতে অভিনয় করেছিলেন অস্ট্রেলীয় ক্রিকেট তারকা ব্রেট লী’র সঙ্গে। ছবিটি করার পরে ব্রেট লী তাঁর অন্যতম সেরা বন্ধু হয়ে গিয়েছেন।

বাবা ও মায়ের সাথে অর্ক।

অর্ক সিনেমা ছাড়াও মঞ্চে অভিনয় করেছেন। সিডনিতে প্রখ্যাত আনসম্বল থিয়েটারের মঞ্চে তিনি নিয়মিত অভিনয় করেছেন। পাশাপাশি পরিচালকের কাজও করছেন কিছু। ওর নির্মিত ‘খানা খাজানা’ নামের শর্ট ফিল্ম সিডনি, মেলবোর্ন সহ কানাডা ও যুক্তরাষ্ট্রের নামকরা ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে শর্ট লিস্টেড হয়েছে।

ডিজনির ছবি ‘মুলান’-এ অভিনয় করেছেন অর্ক।

অস্ট্রেলিয়ার মূলধারার টেলিভিশনে সোপ অপেরা বা টিভি সিরিজে একটানা অভিনয় করেছেন অর্ক। দামী পণ্য বা প্রতিষ্ঠানের মুখ হিসেবে বিজ্ঞাপনেও নিয়মিত অর্ক। সামনের পরিকল্পনা কি? এ প্রশ্নের জবাবে অর্ক বলেন, “স্ক্রিন অস্ট্রেলিয়ার সহায়তায় এবং কো কিউরিয়াস প্রযোজিত একটি ফিচার ফিল্ম তৈরি হচ্ছে। সেটার কো রাইটার আমি। করোনা ক্রান্তিকাল শেষ হলেই সেটির কাজ শুরু হবে।”

বিদেশের মাটিতে তিনি ক্রমাগত উজ্জ্বল করে যাচ্ছেন বাংলার মুখ।
আজ ২৩মে অর্ক দাশগুপ্তের জন্মদিন। আমরা প্রশান্তিকার পক্ষ থেকে গুণী এই তরুণের জন্য শুভ কামনা জানাই।