আজ মুখোমুখি বাংলাদেশ অস্ট্রেলিয়া; সাকিব বধে অস্ট্রেলিয়ার তৎপরতা

  •  
  •  
  •  
  •  

 প্রশান্তিকা ডেস্ক: ক্রিকেট বিশ্বকাপের ২৬ তম ম্যাচে আজ মুখোমুখি অস্ট্রেলিয়া ও বাংলাদেশ। আজ সিডনি সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় এই ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে।
অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী বাংলাদেশীরা আজ খুব আগ্রহ নিয়ে এই ম্যাচ দেখবেন। জন্মসূত্রে বাংলাদেশী এবং বসবাস সূত্রে অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক হলেও এখন পর্যন্ত কোন বাংলাদেশী প্রজন্ম পাওয়া যায়নি যে তারা এই খেলায় অস্ট্রেলিয়া সমর্থন করবে। অবশ্য প্রতিদ্বন্দ্বী বাংলাদেশ না হলে তারা অনায়াসে অস্ট্রেলিয়া সমর্থন করে।

আজ অস্ট্রেলিয়ার পত্র পত্রিকায় বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়া ম্যাচ নিয়ে গুরুত্ব সহ রিপোর্ট করা হয়েছে। ভারত, নিউজিল্যান্ড, ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়া আপাত দৃষ্টিতে সেমি ফাইনালে পৌঁছাতে পারে বলে ধারনা করা হচ্ছে। এরপরেই পাঁচ নম্বরে অবস্থান করছে বাংলাদেশ।
সিডনি মর্নিং হেরাল্ডের এক রিপোর্টে টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়াটা কাজে লাগছেনা বলে বলা হয়েছে। যদিও নিউজিল্যান্ড বাংলাদেশের বিরুদ্ধে এবং বাংলাদেশ ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে সেই সুবিধা নিতে পেরেছে। আজকের খেলায় টসে জিতলে বাংলাদেশ ব্যাটিং অপশন নেবে বলে মনে করা হচ্ছে। আজ বেটিং কোম্পানিগুলোও অস্ট্রেলিয়াকে ফেবারিট রেখেছে। জনপ্রিয় স্পোর্টিং বেটস বাংলাদেশ জিতলে ১ ডলারের বিপরীতে ৫.৫০ ডলার এবং অস্ট্রেলিয়া জিতলে ১.১৪ ডলার দেবে।

আগের খেলায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দূর্দান্ত খেলার কারনে সাকিবের বাঁহাতি স্পিন সামলানোর প্রস্তুতি নেওয়ার জন্য, বাংলাদেশের বিপক্ষে ম্যাচের আগে অ্যাগারকে নিজেদের প্রস্তুতি ক্যাম্পে ডেকে নিয়েছে অজিরা। যাতে করে বাঁহাতি স্পিন খেলে মানিয়ে নিতে পারেন ফিন্স, ওয়ার্নার, স্মিথরা সহ অন্যান্য অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যানরা। অ্যাগার অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বকাপ স্কোয়াডে না থাকলেও এ দলের সফরে বর্তমানে ইংল্যান্ডেই অবস্থান করছেন।

অস্ট্রেলিয়ার কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গার বলেন, ‘সাকিব বর্তমানে বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার এবং একজন বাঁহাতি স্পিনার। অ্যাগার আসায় আমাদের প্রস্তুতিতে সাহায্য করবে।’ এর আগে ১৯ টি একদিনের ম্যাচে বাংলাদেশ অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে মাত্র একবার জয় পেয়েছে। ২০০৫ সালে ইংল্যান্ডের কার্ডিফে এই জয় আসে।
১৮ জুন মঙ্গলবার টনটন ছেড়ে নটিংহ্যাম পৌঁছেছে বাংলাদেশ দল। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুত টাইগারেরা এমনই আত্মবিশ্বাস মাশরাফি বাহিনীর।
অন্যদিকে সাকিবকে লক্ষ্য করে সিডনি মর্নিং হেরাল্ডে বলা হয়েছে, “World’s best all-rounder’: Australia ready for Bangladesh blaster.