আসছে প্রশান্তিকা বর্ষসেরা লেখক ও সাংবাদিক পুরস্কার

  •  
  •  
  •  
  •  

প্রশান্তিকা রিপোর্ট: প্রশান্ত পাড়ের বাংলা কাগজ, প্রশান্তিকা প্রথমবারের মতো বর্ষসেরা লেখক ও সাংবাদিকদের পুরস্কার প্রদানের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। নতুন বছর ২০২০ এ পাঠক লেখক ও শুভাকাঙ্খীদের আরও অধিক যুক্ত করার লক্ষ্যে গতবছর (২০১৯ সাল) প্রশান্তিকায় প্রকাশিত চারটি বিভাগে বর্ষসেরা চার লেখক ও সাংবাদিককে পুরস্কার দেয়া হবে।

গতকাল প্রশান্তিকার পরিচালনা পর্ষদের এক সভায় এই সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। প্রশান্তিকার সম্পাদক আতিকুর রহমান শুভ’র সঞ্চালনায় সভায় সিদ্ধান্ত নেয়া হয়, প্রশান্তিকার পরিচালনা পর্ষদের পাঁচ সদস্য ও বাইরে থেকে প্রথিতযশদের নিয়ে গঠিত বিচারক মণ্ডলী এবং পাঠকের বিবেচনায় এই বর্ষসেরাদের নির্বাচন করা হবে।
গৃহীত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী চারটি বিভাগ হলো: ১/ প্রতিবেদন(সাধারণ); ২/ প্রতিবেদন(বিশেষ); ৩/ মননশীল(শিল্প, সাহিত্য); ৪/ কলাম বা মতামত
২০১৯ সালে প্রশান্তিকায় বিভিন্ন বিষয়ের প্রায় ৮০০ লেখা প্রকাশিত হয়। প্রকাশিত চার বিভাগে পরিচালনা পর্ষদ ৩টি করে লেখা মনোনয়ন করবেন। তারপর বিচারক মণ্ডলী এবং পাঠকের ভোটে প্রতিটা বিভাগে একজন করে বর্ষসেরা নির্বাচিত হবেন। সিডনিতে ভাষার মাস ফেব্রুয়ারীর একটি বিশেষ দিনে বিচারক মণ্ডলী চার জয়ী বর্ষসেরা লেখক ও সাংবাদিকের নাম ঘোষণা করবেন। বর্ষসেরা এই লেখকদের সম্মাননাসহ পুরস্কৃত করা হবে এবং অভিজ্ঞানপত্র দেয়া হবে।

বিচারক মণ্ডলী: প্রশান্তিকার এ মহতী উদ্যোগের সাথে বিচারক হিসেবে রয়েছেন অজয় দাশগুপ্ত (কলামিস্ট), আবু রেজা আরেফিন (সিনিয়র সাংবাদিক), জন মার্টিন (নাট্যজন, মনোবিজ্ঞানী), আসাদ শামস্ (চিকিৎসক, লেখক), আহমেদ আবিদ ( নির্মাতা ও প্রযোজক, গবেষক), চৌধুরী আফতাবুল ইসলাম (সিনিয়র সাংবাদিক), আল নোমান শামীম (সম্পাদক, মুক্তমঞ্চ), শাখাওয়াৎ নয়ন (শিক্ষাবিদ, কথাসাহিত্যিক) এবং প্রশান্তিকার পরিচালনা পর্ষদ থেকে নাদেরা সুলতানা নদী (সহযোগী সম্পাদক), তুলি নূর (ব্রিসবেন প্রধান), নামিদ ফারহান (সাহিত্য সম্পাদক)।
বিচারকমণ্ডলীদের সমন্বয় করবেন প্রশান্তিকা সম্পাদক আতিকুর রহমান শুভ। বিচারক মণ্ডলীতে রয়েছেন প্রায় সকলেই লেখালেখি ও সাংবাদিকতা করেন। বর্ষসেরা মনোনয়নের তালিকায় প্যানেল বিচারকদের কোন আর্টিকেল থাকবে না।

উল্লেখ্য, বর্ষসেরা নির্বাচনের প্রতিটা পর্ব প্রশান্তিকার মাধ্যমে জানানো হবে। সেসময় নির্দিষ্ট বিভাগে সম্মানীত পাঠকের ভোট আহবান করা হবে। প্রশান্তিকা বরাবর প্রত্যাশা করে প্রবাসের মাটিতেও প্রকৃত অর্থে সংবাদপত্র এবং সাংবাদিক ও লেখকের চর্চা গড়ে উঠুক।

0 0 votes
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments