ইউনাইটিং মিন্টো’র আয়োজনে আনন্দমূখর উৎসব ও বর্ণিল দেয়ালচিত্রে এরিকা লেন

  •  
  •  
  •  
  •  

 175 views

প্রশান্তিকা ডেস্ক: গত শনিবার পহেলা ফেব্রুয়ারী, ক্যাম্পবেলটাউন সিটি কাউন্সিল- এর সার্বিক সহযোগিতায় সদ্য আত্মপ্রকাশিত ইউনাইটিং মিন্টো’টিম তাদের প্রথম অনুষ্ঠান “লাইট আপ দা লেন” দিয়ে কমিউনিটিতে বিপুল সারা ফেলে দেয়। হাজারো দর্শকের প্রাণবন্ত উপস্থিতির মূল আকর্ষণ ছিল বিভিন্ন সংস্কৃতির শিল্পীদের পারফরম্যান্স ও খাবারের পাশাপাশি এরিকা লেনের সৌন্দর্য উপভোগ।পুরো আয়োজনটি ক্যাম্পবেলটাউন সিটি কাউন্সিল ও ইউনাইটিং মিন্টো’ নেতৃত্বাধীনে একটি প্রশংসনীয় উদ্যোগ ছিলো।

ক্যাম্পবেলটাউন সিটি কাউন্সিল দীর্ঘদিন যাবৎ মিন্টো’কে আরও সুন্দর ও নিরাপদ করতে কিছু পরিকল্পনা করে আসছিলো, আর এই পরিকল্পনাকে বাস্তবে রূপ দিতে টাউন টীম মুভমেন্ট’ কাউন্সিলকে ২০১৯ থেকে বিভিন্ন কৌশলের মাধ্যমে সহযোগিতা করতে থাকে।সেই প্রয়োজনেই টাউন টিম মুভমেন্ট’ কাউন্সিল – এর সহযোগিতায় একটি ওয়ার্কশপ আয়োজন করে কমিউনিটি মাল্টিকালটারাল টিম গঠন করে দেয় যেটি “ইউনাইটিং মিন্টো”। এই গ্রুপটিতে কমিটেড সদস্যরা জাতিগতভাবে বৈচিত্র হলেও কমিউনিটির বৃহত্তর স্বার্থে অসম সিদ্ধান্তে ব্রত হয়েই কাজ করতে একত্রিত হন। ক্যাম্পবেলটাউন সিটি কাউন্সিল- এর প্রতিনিধি ক্যারোলিন হল্মেস, টাউন টীম মুভমেন্ট -এর কো-অর্ডিনেটর ডেভিড স্ন্যাডার এই ইউনাইটিং মিন্টো’ টীম এর নেতৃত্বে এলিজা টুম্পা-কে নির্বাচিত করেন। এই টিমের অন্যতম সদস্যরা হলেন আলম তপন, শফিকুল আলম শফিক, মুনির হোসাইন, সায়েদ ফাইজ অপু, মাল ফ্রুইন, উষা খাদকা, শর্মিলা বাস্তকতি, এহসান আহমেদ, ফারজানা সৃষ্টি, মাসুদ মিথুন, রাকেশ মন্ডল, আলম অপু, রোকসানা বেগম, কানিজ আহমেদ, ফিরোজ সিদ্দিকী, আসমা আলম, মাহমুদ ইমন, আনিসুর রহমান, আশিক রহমান, মোঃ লুৎফর রহমান টিপু ও সেলিম কবির। সহযোগী সদস্যদের মধ্যে আছেন সাকিনা আক্তার, সায়েদ একরাম উল্লাহ, শুভ্রা মুস্তারিন, মিলি ইসলাম, আতিকুর রহমান ও আশিক রহমান অ্যাশ।

এই গ্রুপের মাধ্যমে এরিকা লেনটিকেই প্রথমত “লাভ লেন” হিসেবে সৌন্দর্যমন্ডিত ও নিরাপদ করবার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। কারণ এই লেনটি দীর্ঘদিন যাবৎ অসামাজিক কার্যকলাপের জন্য একটি স্থায়ী গন্তব্য ছিল যেখানে নিয়মিত অনেকরকম অপ্রীতিকর দুর্ঘটনার অবতারণাও ঘটতে থাকে।কমিউনিটিতে এই লেনটি আতংকের একটি জায়গা হিসেবে পরিচিত হয়ে ওঠে।এই সব দিকগুলো বিবেচনা করে এই গ্রুপটি এরিকা লেন কে নিরাপদ ও সুন্দর করতে কাজ আরম্ভ করে।সেই উদ্দেশ্যেই আন্তর্জার্তিক পুরস্কারপ্রাপ্ত বিশিষ্ট গুণী শিল্পী পার্থ প্রতিম বালার আঁকা মুরাল চিত্রসহ, ফুটপাতে আল্পনা, ছোট্ট পরিসরে নেটিভ ট্রি প্লান্টের বক্স দিয়ে সাজানো বাগান আর খোলা আকাশের নিচে বসবার জন্য দোলনা সহ চওড়া বেঞ্চ যেন পুরো লেনটির পুরোনো চেহারা পাল্টে দেয়, নতুন রূপে সেজে উঠা এরিকা লেন যেন এলাকাবাসির অতীতের ভয়ঙ্কর সকল দুর্ঘটনাকে ভুলিয়ে দেয়। সেইসাথে শিশুদের আর্ট কম্পেটিশন, ফেস পেইন্টিং, হেনা সহ স্থানীয় হোমবেসড বিজনেস ওনারদের দেয়া মার্কেটস্টল ও সংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের পাশাপাশি বহু জনপ্রিয় ফুড ট্রাক উৎসব’ -এর মজাদার খাবার পুরো আয়োজনকে পরিপূর্ণ করেছে। এক কথায় বলা যায়, এরিকা লেন এখন এলাকাবাসীর জন্য একটি আকর্ষণীয় স্থান। এই এরিকা লেনটির স্বত্তাধাকারী দুজন বাংলাদেশী ব্যাবসায়ী আলম তপন ও আলম অপু, যারা দুজনেই তাদের নিজস্ব জায়গায় ক্যাম্পবেলটাউন সিটি কাউন্সিল ও ইউনাইটিং মিন্টো’ টিমকে নতুন আলোকে সাঁজাতে অনুমতি দিয়ে সর্বাত্মক সহযোগিতা করেছেন। এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে ইউনাইটিং মিন্টো’ টিম তাঁদেরকে অশেষ ধন্যবাদ জানায়।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ক্যাম্পবেলটাউন সিটি কাউন্সিল – এর মেয়র জর্জ বিটিসিভিক তার বক্তৃতায় “ইউনাইটিং মিন্টো” টিমকে শুভেচ্ছা জানিয়ে আয়োজিত অনুষ্ঠানের ব্যাপক প্রশংসা করেন।তার সাথে আরও উপস্থিত ছিলেন ডেপুটি মেয়র ডারসি লাউন্ড, কাউন্সিলরস মাসুদ চৌধুরী, ক্যারেন হান্ট ও বেন গিলহোল্ম। কাউন্সিলর মাসুদ চৌধুরী ইউনাইটিং মিন্টো’টিম মেম্বারদেরকে এই আয়োজনে উৎসাহ দিতে পাশে থাকার জন্য টিমের সকলের পক্ষ থেকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান এলিজা টুম্পা। এছাড়াও এই আয়োজনে উপস্থিত ছিলেন অন্যান্য কমিউনিটি লিডারস, বিশিষ্ট ব্যাবসায়ীগণ, সংস্কৃতিক কর্মী ও বিভিন্ন পত্রিকার সাংবাদিকবৃন্দ।

দাবানলের ভয়াবহতা কাটিয়ে উঠতেই, গ্রীষ্মের ৪৫ ডিগ্রী তাপমাত্রা উপেক্ষা করে পুরো কমিউনিটি এই প্রথম মিন্টোতে নানান দেশের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ করেছে। উপভোগ করেছে বাচ্চাদের আর্ট কম্পেটিশন, রকমারি পণ্যের বাহারি সমারোহ ও বিভিন্ন স্বাদের খাবার। বাংলাদেশী শিল্পীর হাতে আঁকানো এরিকা লেনের মুরাল দুটির মূল প্রতিপাদ্য বিষয় হলো, এই এলাকায় বসবাসরত এলাকাবাসীদের নিজ-দেশীয় আইকনগুলোর সংযোজন, যা কিনা বাঙালীদের জন্য আরেকটি গৌরবোজ্জ্বল কাজ।অনুষ্ঠানটি বিকেল ৫টা থেকে শুরু করে রাত ১০টা পর্যন্ত চলে।
ইউনাইটিং মিন্টো’ টিমের এই টাউন বিউটিফিকেশন কর্মসূচী অব্যাহত থাকবে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

0 0 vote
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments