এএমডব্লিওসি সানডে ইসলামিক স্কুলের বার্ষিক শিক্ষা প্রতিযোগিতা ২০১৯

  •  
  •  
  •  
  •  

 120 views

প্রশান্তিকা ডেস্ক: অষ্ট্রেলিয়ান মুসলিম ওয়েলফেয়ার সেন্টার (এএমডব্লিওসি) কর্তৃক পরিচালিত এএমডব্লিওসি সানডে ইসলামিক স্কুলের বার্ষিক শিক্ষা প্রতিযোগিতা ২০১৯ অনুষ্ঠিত হয়ছে। বার্ষিক এ প্রতিযোগিতায় স্কুলের বিপুল ছাত্র-ছাত্রীরা অংশগ্রহন করেন। সানডে মাদ্রাসা প্রতি রবিবার সকাল ৯টা থেকে ১১টা পর্যন্ত কুরআন ও ইসলামিয়াত অত্যন্ত অভিজ্ঞ শিক্ষক-শিক্ষিকা দ্বারা পরিচালিত হয়।

এএমডব্লিওসি এর এডুকেশন ও ইয়ূথ এফেয়ার সম্পাদক জনাব গোলাম মোস্তফা দায়িত্ব দেয়ার পরই নতুন আঙ্গিকে স্কুল পরিচালনার পরিকল্পনা নেন। সে অনুযায়ী অভিজ্ঞ শিক্ষক-শিক্ষিকা নেয়া হয়েছে। এ বৎসর ছাত্র-ছাত্রীর বৃদ্ধি পেয়েছে অনেক। ক্লাশ বা লেবেল ভিত্তিক অনুযায়ী কুরআন তেলওয়াত, ইসলামিক ষ্টাডিস ও তাজওহীদ বিষয়ে বার্ষিক প্রতিযোগিতা হয়। প্রতিযোগিতায় বিচারকের দায়িত্বে ছিলেন মিন্টো মসজিদের পেশ ইমাম শেখ শহীদ, এএমডব্লিওসি এর সভাপতি গোলাম কিবরিয়া, স্কুলের প্রিন্সিপাল গোলাম মোস্তফা, স্কুলের শিক্ষক রফিক ভূঞা ও মো. ফকরুল ইসলাম। বিচারকদের সহায়তা করেন ষ্কুলের শিক্ষক- শিক্ষিকাবৃন্দ শাইয়ার শাহ শাহেদ, শালিনী শাহ, আবরার চৌধুরী, মেহনাজ ইকবাল, নাইম মোস্তফা, সাদাব হোসেন ও সাজেদুর প্রান্ত।

বার্ষিক প্রতিযোগিতায় স্কুলের অভিভাবক সহ সংগঠনের কার্যকরী পরিষদের সদস্যসহ গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ এবং ক্যাম্বেলটাউন সিটি কাউন্সিলের কাউন্সিল জনাব মাসুদ চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন। পুরস্কার বিতরন করেন সংগঠনের সাধারন সম্পাদক ড. আনিছুল আফছার, মিন্টো মসজিদের পেশ ইমাম শেখ শহীদ, স্কুলের প্রিন্সিপাল গোলাম মোস্তফা। প্রতিযোগিতার তত্বাবধানে ছিলেন মহিউদ্দিন উল হক ও এ কে এম জামান। দুপুরের নামাজের পর বারবিকিউ এর মাধ্যমে শিক্ষাথী ও অতিথিদের আপ্যায়ন করা হয়। বিজয়ীরা হলেন -কুরআন তেলওয়াত (লেবেল-ওয়ান ১) প্রথম- নওয়া ভূঞা, দ্বিতীয়-সুমাইতা খান তৃতীয়-সাইয়ান। কুরআন তেলওয়াত (লেবেল-টু) প্রথম-আয়েশা ইমরান, দ্বিতীয়-জুনাইয়াহ জামান, তৃতীয়-নাডিড রহমান। কুরআন তেলওয়াত (লেবেল-থ্রি) প্রথম-সাফির হুসেন, দ্বিতীয়-আয়াত ভূঞা, তৃতীয়-সুহানা মুকিব। কুরআন তেলওয়াত (লেবেল-ফোর) প্রথম-আরিশা হক দ্বিতীয়-অদ্রিতা ভূঞা, তৃতীয়-আইমন হক। ইসলামিক ষ্টাডিস (লেবেল ওয়ান) প্রথম-রায়িড মোরশেদ, দ্বিতীয়-জাকারিয়া হুদা, তৃতীয়-সুমাইতা খানক।  ইসলামিক ষ্টাডিস (লেবেল টু) প্রথম-সাবরিন ইসলাম, দ্বিতীয়-আইডিন ভূঞা, তৃতীয়-রাজিয়া জেবিন। ইসলামিক ষ্টাডিস (লেবেল থ্রি) প্রথম-আরিশা হক ও সাকিব রশিদ, দ্বিতীয়-মাহিন মান্নান, তৃতীয়-তাসনিম হুশেন। তাজওহীদ (লেবেল ফোর) প্রথম-আরিশা হক, দ্বিতীয়-আইয়েনা রহমান, লাবিব, সাফিন, তৃতীয়-অদ্রিতা ও সাবরিন। উল্লেখ্য যে, সাউথ ইষ্ট এর ক্যাম্নেলটাউন সিটি কাউন্সিলস্থ মিন্টোতে মাল্টিপারপাস ইসলামিক কমিউনিটি সেন্টার তৈরীর জন্য জমি ক্রয় করা হয়েছে। সম্প্রতি কমিউনিটি সেন্টার গড়ে তোলার জন্য সিটি কাউন্সিলের অনুমোদন নেয়া হয়েছে। যা শীঘ্রই প্রজেক্টের কাজ শুরু হবে।

অষ্ট্রেলিয়ান মুসলিম ওয়েলফেয়ার সেন্টার এর কোন ভেরিফাইড ফেসবুক নেই

সংগঠনের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আতিকুর রহমান জানান যে, অস্ট্রেলিয়ান মুসলিম ওয়েলফেয়ার সেন্টারের এখনও কোন ভেরিফাইড ফেসবুক একাউন্ট নেই। সম্প্রতি কেহ কেহ বেনামে সংগঠনের নামে ফেসবুক আইডি খুলে বিভিন্ন প্রচারের কাজ করে যাচ্ছে যা সম্পূর্ন বেআেইনী। এ ধরনের কাজ থেকে বিরত থাকার অনুরোধ জানিয়েছে প্রচার সম্পাদক।

সবুজ বাংলা বৃক্ষ রোপন কর্মসূচী শুরু হয়েছে


সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়ান মুসলিম ওয়েলফেয়ার সেন্টারের নিজস্ব জায়গায় সবুজ বাংলা বৃক্ষ রোপন কর্মসূচী নেয়া হয়েছে। সংগঠনের যুগ্ম সম্পাদক সাদেকুর রহমান মুন ও কোষাধ্যক্ষ জাহিরুল ইসলামের তত্বাবধানে এ বৃক্ষ রোপন কর্মসূচী শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যেই বিভিন্ন জাতের আম, কাঠাল, ফিক, দেশী জাম ও জামবুরা, লাউ, চকু, মিষ্টি কুমড়াসহ বৃক্ষ রোপন করা হয়েছে। কমিউনিটির অনেক সদস্য এ ধরনের প্রকল্পকে প্রসংশা করেছে এবং সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে। যে কেহ এ প্রকল্পে সহায়তা করতে পারেন এবং সাদেকুর রহমান মুন ও জাহিরুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন।

0 0 vote
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments