ভাবনা -মোল্লা মোঃ রাশিদুল হক

514

নির্মীলিত অক্ষিপটে রংহীন বেদনার জল,
ছন্দবদ্ধ কবিতা আর আকাশের তারা মিলেমিশে একাকার;
ফিরে ফিরে আসে সৌজন্যকপি স্মৃতিরা,
শুধুই ভাবায় অতীতটা কি অন্যরকম হতে পারতো না?

জেনেছিলাম যদিও ভালোবাসা রং বদলায়,
পৃথিবীর বুকে তিরোহিত কৃষ্ণচূড়ার ফুলের মত…
জাতিস্মর ভাবে – কিই বা এসে যায়
সব ফুলই যদি অন্যের জন্যে ফোটে,
সবটুকু আকাশ যদি অন্যের হয়,
বা দিঘীর বুকের সবটুকু জলেই যদি
অন্যের ছায়া পড়ে….

মনে করা যাক
তারে আমি চিনি না,
তবু তার ছন্দবদ্ধ সুর, তার, লয়,
জীবনকে নতুন করে সাজায়।

হৃদয় বিধৌত জলে কাব্যিক ছন্দপতন ঘটে,
লয় আর তালেরা ডুব সাঁতার কাটে।
স্মৃতি যেখানে চরন
সেখানে বর্তমান অস্পৃশ্য;
স্বরলিপি জঘন্য আকার ধারন করে,
সুরের বচসায় কান পাতা দায় আর
সঙ্গীত তো অবাঞ্চিত।

কবিতারা না হয় নাই কথা বললো
শুধু অস্ফুট শব্দে ভরে যাবে বিশ্ব চরাচর
আর ধীরে ধীরে সেখান থেকে
বিচ্ছুরিত হবে মিটমিট আলো।