কামাল হোসেন, আসম রব এরা ইতিহাসের আস্তাকুড়ে নিক্ষিপ্ত হবে – মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ. ক. ম. মোজাম্মেল হক, সিডনির আলোচনা সভায়

  •  
  •  
  •  
  •  

প্রশান্তিকা রিপোর্ট: অস্ট্রেলিয়া আওয়ামী লীগের উদ্যোগে গত ৩১ মার্চ ২০১৯ রোববার সন্ধ্যায় সিডনিতে স্বাধীনতা দিবসের আলোচনা সভায় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের মাননীয় মন্ত্রী, বীর মুক্তিযোদ্ধা আ. ক. ম. মোজাম্মেল হক বলেন, ড. কামাল হোসেন, আ স ম রব এরা একদিন ইতিহাসের আস্তাকুড়ে নিক্ষিপ্ত হবে। সংগঠনের সভাপতি ড. আব্দুর রাজ্জাকের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. আবুল হাসনাৎ মিল্টনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় তিনি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানের শুরুতে বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ মুক্তিযুদ্ধের সকল শহীদ এবং পনেরোই আগস্টে নিহত সকলের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।বক্তব্য রাখেন সিডনি প্রবাসী মুক্তিযোদ্ধা এনায়েতুর রহিম বেলাল, মুক্তিযোদ্ধা মিজানুর রহমান তরুণ, মুক্তিযোদ্ধা হেলাল খান, অস্ট্রেলিয়া আওয়ামী লীগের ড. খায়রুল হক চৌধুরী,
মশিউর রহমান হৃদয়, হাসান ফারুক শিমুন রবিন, মোহাম্মদ ওবায়েদুল হক, ওসমান গনি, অস্ট্রেলিয়া যুবলীগের সভাপতি মোস্তাক মিরাজ এবং সাধারণ সম্পাদক নোমান শামীম।

আলোচনা সভায় মুক্তিযোদ্ধারা বর্তমানে বিভিন্নভাবে মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানিত করার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানান। মুক্তিযোদ্ধা মিজানুর রহমান তরুণ তার বক্তব্যে প্রবাসে বসবাসকারী কোন মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যু হলে তার লাশ রাষ্ট্রীয় খরচে দেশে সমাহিত করার ব্যবস্থা করবার জন্য দাবী জানান। মন্ত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সাথে দাবিটি নিয়ে আলোচনা করবেন বলে আশ্বাস দেন।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি তার বক্তৃতায় বলেন, জিয়া স্বাধীনতার ঘোষণা দিতে চাননি, তাকে জোর করে এটা করানো হয়েছে। বঙ্গবন্ধু ২৬ মার্চের প্রথম প্রহরেই স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েছিলেন। আগামী বছর আওয়ামী লীগ সরকার পুরো এক বছর জুড়ে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালন করবে। তিনি আরও বলেন, কামাল হোসেন, আসম রব এরা ইতিহাসের আস্তাকুড়ে নিক্ষিপ্ত হবে। বঙ্গবন্ধুর ছত্রছায়া ছাড়া এরা কিছুই করতে পারত না। তাই এখন তাদের অবস্থান শুন্য।

আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়ন নিয়ে আ.ক.ম মোজাম্মেল হক এমপি বলেন, স্বাধীনতার পর থেকে বার বার স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি ক্ষমতায় এসে দেশকে পিছিয়ে দিয়েছে। আওয়ামী লীগ উন্নয়ন করেছে। দেশে এখন কেউ না খেয়ে মরেনা। খাদ্য উদ্বৃত্ত আছে। বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল মডেলে পরিনত হয়েছে।

অনুষ্ঠানের এক পর্যায়ে মাননীয় মন্ত্রী সংগঠনের সাংস্কৃতিক সম্পাদিকা, কবি ও লেখক আইভি রহমানের ‘কিছু স্মৃতি অমলিন’ এবং ‘হার্ট অন ফায়ার’ শীর্ষক দুটি গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করেন।অনুষ্ঠানে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক তরুণ প্রজন্মের ছেলেমেয়েরা উপস্থিত ছিল, তারা মন্ত্রমুগ্ধের মত মাননীয় মন্ত্রীর মুখে বঙ্গবন্ধুর দীর্ঘ সংগ্রামের কাহিনী শুনছিলেন। মন্ত্রী নিজেও বঙ্গবন্ধুর নির্দেশে একাত্তরের উনিশে মার্চ পাকিস্তানী সেনাবাহিনীর বিরূদ্ধে সশস্ত্র প্রতিরোধ গড়ে তুলেছিলেন।

0 0 votes
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments