ক্যাম্পবেলটাউনে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস প্রস্তাবিত মনুমেন্ট সেমিনারে কমিউনিটির বিভিন্ন ভাষা-ভাষীর মতামত

  •  
  •  
  •  
  •  

প্রশান্তিকা ডেস্ক: গতকাল রোববার ২০শে জুন সিডনির ক্যাম্পবেলটাউন কাউন্সিল এলাকায় একটি “আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস মনুমেন্ট” নির্মানের লক্ষ্য নিয়ে এলাকার বিভিন্ন ভাষা-ভাষীদের এক বিশেষ সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। সেমিনারে প্রস্তাবিত মনুমেন্টের মূল ডিজাইন এবং এর ভিডিও এনিমেশন দেখানো হয়।

সেমিনারে প্রস্তাবিত আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস মনুমেন্টের প্রস্তাবিত মূল ডিজাইন।

সেমিনারে উপস্থিত দর্শকবৃন্দ ডিজাইন ও এর প্রয়োজনীয়তার উপর বিশদভাবে তাদের অভিব্যাক্তি তুলে ধরেন। প্রশ্নোত্তর কালে ডিজাইনটির আরকিটেক্ট মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান সকলকে সন্তোষজনকভাবে বোঝাতে সক্ষম হন এবং উপস্থিত সকলে আরকিটেক্ট ও উদ্যোক্ত কমিটির ভূয়সী প্রশংসা করেন। সেমিনারে বাংলাদেশ, ভারত, টোংগা, সামোয়া, নেপাল, পাকিস্তান, শ্রীলংকা, পাকিস্তান, নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া সহ বিভিন্ন ভাষা-ভাষীর সুধীজন উপস্থিত ছিলেন।

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস মনুমেন্ট প্রজেক্টের বিভিন্ন বিষয়ের উপর আলোকপাত করছেন প্রজেক্ট কো-অর্ডিনেটর কায়সার আহমেদ।

কোভিড-১৯ নিয়ম মেনে সীমিত আকারের এই সেমিনারের উদ্যোক্তা আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস মনুমেন্ট প্রজেক্ট কমিটির পক্ষ থেকে কো-অর্ডিনেটর কায়সার আহমেদ উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানান। অনুষ্ঠানে কাউন্সিলর মাসুদ চেীধুরী উপস্থিত ছিলেন। এখানে উল্লেখযোগ্য যে কাউন্সিলের উদযোগে গত পাঁচ বছর ধরে প্রতি বছরের ২১শে ফেব্রুয়ারী সরকারীভাবে কাউন্সিল চত্বরে বাংলাদেশ পতাকা উত্তোলন এবং মাতৃভাষা দিবসের উপর আলোচনা ও সাংস্কৃতি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়ে থাকে। জনাব চেীধুরী তার বক্তব্যে এই মনুমেন্ট স্থাপনায় তার সর্বপ্রকার সহযোগিতার আশ্বাস পুন:ব্যক্ত করেন। তিনি আরো বলেন যে পৃথিবী থেকে সকল মাতৃভাষাকে সংরক্ষিত করার জন্যে সকলকে একযোগে কাজ করতে হবে। তিনি কমিটিকে সর্বপ্রকার সহযোগিতা করার জন্যে কমিনিউনিটির বিভিন্ন ভাষা-ভাষীদের প্রতি আহ্বান জানান।

সেমিনারে অন্যান্য অতিথিদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ইঞ্জিনিয়ার ওসমান চেীধুরী, আরকিটেক্ট আশেক চেীধুরী, ইঞ্জিনিয়ার মাসুদ হাসান, ক্রিস্টিয়ান হোয়াইট (অস্ট্রেলিয়া), করামজিৎ সিং (ইন্ডিয়া), মুস্তাফিজুর রহমান (বাংলাদেশ), হেরিশ গয়াল (ইন্ডিয়া), পারভেজ খান (পাকিস্তান), গনেন্দ্র রাজ ফিয়াক (নেপাল),মোফাজ্জল ভূইয়া (বাংলাদেশ), মেল ফুয়েন (নিউ জিল্যান্ড-মাওরি), একেএম এমদাদুল হক (বাংলাদেশ) সহ আরো অনেকে।

প্রজেক্ট কো-অর্ডিনেটর কায়সার আহমেদ কোভিড- ১৯ এর নিয়মের বাধ্যবাধকতায় স্বল্প পরিসরে সীমিত আয়োজনের অত্র সেমিনারে আরো অধিক লোককে সংকুলান করতে না পারায় দু:খ প্রকাশ করেন এবং মনুমেন্ট বিষয়ে এই সেমিনারে উৎসাহ উদ্দীপনা দেখে আগামী ১১ই জুলাই ২০২১ তারিখে অধিক কলেবরে বড় পরিসরের আলোচনার আয়োজন করার প্রস্তাব করেন। প্রস্তাবিত ডিজাইনের উপর আরো মতামত জানানোর জন্যে সকলকে কমিটিকে ইমেইলের মাধ্যমে জানানোর অনুরোধ করা হয়।

সেমিনারের শুরুতেই প্রজেক্ট কমিটির সকলকে পরিচয় করিয়ে দেয়া হয়। কো-অর্ডিনেটর কায়সার আহমেদ, জয়েন্ট কো-অর্র্ডিনেটরস ড. রফিকুল ইসলাম, আজম সর্দার, পারভেজ খান এবং অন্যান্য সদস্যরা হলেন সৈয়দ আকরাম উল্লাহ, ক্রিস্টিয়ান হোয়াইট (অস্ট্রেলিয়া), মুস্তাফিজুর রহমান তালুকদার, হেরিশ গয়াল (ইন্ডিয়া), আব্দুস সোবহান, করামজিৎ সিং (ইন্ডিয়া), গনেন্দ্র রাজ ফিয়াক (নেপাল), মাহফুজুল চেীধুরী খসরু, মদন রুয়াত (নেপাল), শাহ আব্দুল মতিন পপলু, মেল ফুয়েন (নিউ জিল্যান্ড-মাওরি), সেলিম কবির, শাহ আলম, মোহাম্মদ ফেরদেীস, একেএম এমদাদুল হক এবং ফারুক তালুকদার। উপস্থিত সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সেমিনার এর সমাপ্তি ঘোষনা করেন জয়েন্ট কো-অর্ডিনেটর আজম সর্দার।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

0 0 votes
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments