চট্টগ্রামে প্রবর্তক মোড়ে শোভা পাচ্ছে আইয়ুব বাচ্চুর রূপালি গিটার

  •  
  •  
  •  
  •  

ইসমত অারা প্রিয়া, চট্টগ্রাম থেকে: এই রূপালি গিটার ফেলে/একদিন চলে যাব দূরে বহুদূরে/বহুদূরে। তবে তিনি তার কোটি প্রাণের শ্রোতা আর সেই রুপালি গিটার ছেড়ে

প্রবর্তক মোড়ের রূপালী গিটারের নকশা  

সত্যি চলে যাবেন তা কেউ ভাবতই পারেননি। তার অসংখ্য গানে কোটি শ্রোতার মনে চিরস্থায়ী জায়গা করে নেয়া মানুষটা সত্যি সত্যিই চলে গেলেন। সাথে রেখে গেলেন তার অসংখ্য গান অার সেই রুপালি গিটার।
হ্যাঁ, তিনিই অামাদের আইয়ুব বাচ্চু। বাংলাদেশের ব্যান্ড সঙ্গীতের অবিস্মরণীয় কিংবদন্তী তিনি। গত বছরের ১৮ অক্টোবর চিরতরে না ফেরার দেশে পাড়ি জমান বরেণ্য এই সঙ্গীতজ্ঞ।

কিংবদন্তী শিল্পী আইয়ুব বাচ্চুর প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে, তার স্মৃতি অমলিন করে রাখতে চট্টগ্রামের প্রবর্তক মোড়ে বসানো হয়েছে একটি রূপালি গিটার আদলের ভাস্কর্য। মাস দুয়েক আগেই এই সিদ্ধান্তটি নেয়া হয়। অবশেষে সেই মোড়ে বসেছে এবি’র সেই রুপালি গিটার।

গতকাল বৃহস্পতিবার থেকে প্রবর্তক মোড়ে শোভা পাচ্ছে গিটারটি। এর আগে বুধবার রাতে সেখানে গিটারটি নিয়ে যাওয়া হয়। শুধু গিটারই নয়, ওই চত্বরটিকে ‘আইয়ুব বাচ্চু চত্বর’ নাম দেয়ার বিষয়টিও শোনা গেছে। যদিও সেটা এখনও চূড়ান্তভাবে জানা যায়নি।
তবে গিটারটির ভাস্কর কে, সেটা এখনও জানা যায়নি। কারণ চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের কাছে এখনও কাজটি হস্তান্তর করা হয়নি।প্রবর্তক মোড়ে রূপালি গিটার বসানোর কাজটি করেছে অডিওস ইঙ্ক। হস্তান্তরের পরে সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে গিটার ও চত্বর সম্পর্কে পূর্ণাঙ্গ তথ্য পাওয়া যাবে।

গত বছরের ১৮ আগস্ট চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের গোলপাহাড় মোড় থেকে প্রবর্তক মোড় পর্যন্ত চার লেন বিশিষ্ট সড়কটির সৌন্দর্যবর্ধন, সবুজায়ন ও আধুনিকায়নের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়। অডিওস ইঙ্ক ও স্ক্রিপ্ট যৌথ উদ্যোগে এ সৌন্দর্যবর্ধনের কাজ করার জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়। সেই চুক্তি মোতাবেক সৌন্দর্যবর্ধনের আওতায় প্রবর্তক মোড়ে বসানো হয়েছে আইয়ুব বাচ্চুর সেই রুপালি গিটারের আদলে একটি ভাস্কর।কিংবদন্তী আমাদের ছেড়ে চলে গেছেন কিন্তু তাঁর রেখে যাওয়া গিটার এবং অসংখ্য গান বারবার আমাদের তাঁর কথা মনে করিয়ে দেবে।