ডেটলাইন বাংলাদেশ: করোনা সংক্রমণ ও মৃতের সংখ্যার উর্ধ্বগতি

  •  
  •  
  •  
  •  

 136 views

প্রশান্তিকা ডেস্ক: এক মাসর ওপর হয়ে গেলো বাংলাদেশে এসেছে কোভিড-১৯ বা করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ। টেস্টের অপ্রতুলতা বা সংক্রমণের হার কম হওয়ায় শুরুতে তেমন ভয়াবহতা দেখা না দিলেও এই মুহূর্তে ভয়াবহ আঁকার ধারন করছে ভাইরাসটি। গত বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তর পুরো দেশকে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে ঘোষণা দিয়েছে। সেই হিসেবে পুরো দেশ এখন লকডাউনের আওতায়।
গত তিনদিন পরপর ৬জন, ১০জন এবং ১৫ জন মারা গেছে এই ভাইরাসে। গতকাল পর্যন্ত দেশে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৭৫ জনে। গতকাল স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক তার নিয়মিত অনলাইন ব্রিফিংয়ে এই তথ্য জানান। দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে প্রায় দুই হাজারে। গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে সর্বমোট ২ হাজার ১৯০ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। তাদের মধ্যে নতুন করে ২৬৬ জনের শরীরে করোনার উপস্থিতি শনাক্ত করা হয়েছে।

ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ ও গাজিপুর জেলায় সংক্রমণের হার সবচেয়ে বেশি।ছবি: উইকিপিডিয়া।

চিকিৎসক ছাড়াও ফ্রন্টলাইনে কাজ করা পুলিশ সদস্যরাও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছেন। প্রথম আলো সূত্রে জানা গেছে, এখন পর্যন্ত ৫৮ জন পুলিশ সদস্য আক্রান্ত হওয়ার তথ্য পাওয়া গেছে। এর মধ্যে ২৭ জনই ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) বিভিন্ন বিভাগে কর্মরত। এ ছাড়া সংক্রমণের ঝুঁকিতে আছেন, এমন ছয় শতাধিক পুলিশ সদস্যকে হোম ও প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়েছে।

ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ ও গাজিপুর জেলাকে সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। এসব এলাকায় স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি পুলিশি তৎপরতা ও মাঠ প্রশাসন কঠোর করা হয়েছে।
সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের বা আইইডিসিআর সূত্রমতে, এলাকাভেদে সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ হচ্ছে ঢাকায়। শনাক্ত ব্যক্তিদের মধ্যে ৪৬ শতাংশই ঢাকা শহরের। ২০ শতাংশ রোগী নারায়ণগঞ্জের। ঢাকায় সবচেয়ে বেশি রোগী শনাক্ত হয়েছে মিরপুরে।
ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ ও গাজীপুর থেকে যাওয়া ব্যক্তিদের ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন কঠিনভাবে মানানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে।

অধিক জনসংখ্যা ও জনবসতির দেশে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করা দূরহ। তারপরও সার্বক্ষণিক প্রহরের দায়িত্ব পালন করছে বাংলাদেশ পুলিশের সদস্যরা।

সারা বিশ্বে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা দেড় লাখ ছাড়িয়ে গেছে। আক্রান্ত হয়েছে ২২ লাখ ৪৫ হাজার মানুষ। অন্যদিকে অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড সহ বেশ ক’টি দেশে সংক্রমণ কমে আসলেও যুক্তরাষ্ট্র, ইতালী, ফ্রান্স, স্পেন, যুক্তরাজ্যে এখনও সংক্রমিত হচ্ছে অসংখ্য মানুষ।

যুক্তরাষ্ট্রে কোভিড-১৯ ভাইরাসে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৭ লাখ ২৮২ জনে এবং মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৬ হাজার ৭৭৩ জনে। আক্রান্তের ও মৃতের এ সংখ্যা বিশ্বের অন্য যেকোনো দেশের চেয়ে অনেক বেশি।
গত ২৪ ঘণ্টায় কোভিড-১৯ ভাইরাসে ৩ হাজার ৮৫৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক ছাড়াও অন্যান্য রাজ্যে বাংলাদেশীরা প্রাণ হারিয়েছেন। এনিয়ে সারা বিশ্বে প্রায় ৩৫০ বাংলাদেশী প্রবাসীর মৃত্যু হয়েছে।

0 0 vote
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments