পি এস চুন্নুর অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন । শোক ও শ্রদ্ধা জানান অসংখ্য মানুষ

  
    
প্রশান্তিকা রিপোর্ট: শোক, শ্রদ্ধা, ভালোবাসা ও চোখের জলে চিরবিদায় নিলেন অসংখ্য মানুষের প্রিয় মুখ প্রদ্যুৎ সিংহ চু্ন্নু।
বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ অস্ট্রেলিয়ার সাধারণ সম্পাদক, কমিউনিটির প্রিয় মুখ প্রদ্যুৎ সিংহ চুন্নুর অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া গত শনিবার সম্পন্ন হয়েছে। তাকে শ্রদ্ধা জানাতে সিডনির রাউজ হিলের ক্যাসেলব্রুক মেমোরিয়াল পার্কে সমাগত হয়েছিলেন তাঁর অসংখ্য বন্ধু, স্বজন, গুণগ্রাহী ও আওয়ামীলীগসহ বিভিন্ন দল ও সংগঠনের নেতা কর্মীরা।
অন্তোষ্টিক্রিয়ার মূল পর্ব সকাল ১০টায় শুরু হলেও অনেক আগে থেকেই উপস্থিত হয় অসংখ্য মানুষ। হিন্দু সনাতন ধর্মের রীতি অনুযায়ী পুরোহিত হিসেবে তাঁর অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া পরিচালনা করেন কৃষিবিদ পরমেশ ভট্টাচার্য।
বাংলাদেশ পূজা এসোসিয়েশন অস্ট্রেলিয়া  (বিপিএ) ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জগন্নাথ হল এলামনাই এসোসিয়েশনের যৌথ উদ্যোগে তাঁর অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন করা হয় হয়। প্রায় দুপুর ১২টার মধ্যে স্বয়ংক্রিয় বৈদ্যুতিক চু্ল্লীর মাধ্যমে পি এস চু্ন্নুর শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়।
কান্নাজড়িত কন্ঠে বিদায় জানান স্ত্রী বিলকিস জাহান।
শেষকৃত্যানুষ্ঠানে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ অস্ট্রেলিয়া ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মী, বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন, সংবাদপত্রের সম্পাদক ও সাংবাদিক, সাধারণ জনগণ প্রদ্যুৎ সিং চুন্নুর মরদেহে ফুলেল শ্রদ্ধা জানান। এসময় অনেকের কান্নায় পুরো পরিবেশ ভারী হয়ে ওঠে।
অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার মূল পর্বের পরে প্রায় ৪০ মিনিট ধরে প্রয়াত চু্ন্নু স্মরণে শোক ও শ্রদ্ধা জানিয়ে বক্তব্য রাখেন বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক সংগঠনের নেতা ও তাঁর স্বজনেরা। এই পর্বটি সঞ্চালনা করেন তাঁর বন্ধু ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জগন্নাথ হলের প্রতিবেশী ক্যানবেরাবাসী তুষার কান্তি রায়। এসময় স্মৃতিচারণ করেন তাঁর স্ত্রী বিলকিস জাহান, অস্ট্রেলিয়ার ডিপ্লোম্যাটিক মিশনের পক্ষে কনসাল আশফাক হোসেন, অস্ট্রেলিয়া আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা ও বঙ্গবন্ধু পরিষদ অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন সভাপতি ড. রতন কুন্ডু, চুন্নুর বাল্যবন্ধু ও ক্যানবেরা বাংলাদেশি কমিউনিটির পক্ষে ড. তপন কুন্ডু, বাংলাদেশ পূজা এসোসিয়েসনের সভাপতি দিলীপ দত্ত, বঙ্গবন্ধু পরিষদ সিডনির সভাপতি ও ওয়েস্টার্ন সিডনি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষক ড. মাসুদুল হক, সিডনির বাংলাদেশি কমিউনিটির পক্ষে গামা আব্দুল কাদির, বঙ্গবন্ধু কাউন্সিল অস্ট্রেলিয়ার সভাপতি শেখ শামিমুল হক, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলামনাই এসোসিয়েসনের প্রেসিডেন্ট কামরুল মান্নান আকাশ, জগন্নাথ হল এলামনাই এসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট ড. সমীর সরকার, চুন্নুর ঘনিষ্ট বন্ধু ক্যানবেরা থেকে আগত ড. এজাজ আল মামুন, পূজা এসোসিয়েসনের কিশোর দাশ, চু্ন্নুর বন্ধু এমিলি কুন্ডু। চুন্নুর বাল্যবন্ধু ড. তপন কুন্ডু বলেন, দেশে থাকা চু্ন্নুর পরিবারের সাথে কথা বলে তাদের অনুমতি নিয়েই তাঁর মরদেহ সিডনিতে সৎকার করা হলো।
চুন্নু স্মরণে বক্তব্য রাখেন গামা আব্দুল কাদির।
শোক ও শ্রদ্ধা জানাতে চুন্নুর স্ত্রী বিলকিস জাহান কান্নায় ভেঙে পড়েন। তিনি বলেন, ২০০৬ সালে তিনি চু্ন্নুর সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন। চু্ন্নুর জন্ম একটি হিন্দু পরিবারে হওয়ায় তিনি তাকে সনাতন ধর্মের রীতি অনুযায়ী সৎকার করার অনুমতি দিয়েছেন বলে বিলকিস জাহান তাঁর বক্তব্যে পরিস্কার করেন। কনসাল আশফাক হোসেন মান্যবর হাই কমিশনারের  পাঠানো শোক বার্তা পাঠ করেন ও কনসাল জেনারেলের পক্ষে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এবং  অস্ট্রেলিয়া আওয়ামী লীগ সভাপতি ড. সিরাজুল হকের পাঠানো শোক বার্তা পাঠ করেন ড. রতন কুন্ডু। উল্লেখ্য, ড. সিরাজুল হক এই মুহূর্তে বাংলাদেশ সফরে রয়েছেন।
শোক প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন এবং সঞ্চালনা করেন তুষার রায়।
প্রদ্যুৎ সিং চুন্নু গত ২৮ ডিসেম্বর স্ট্রোকে আক্রান্ত হলে তাকে সিডনির প্রিন্স অব ওয়েলস হাসপাতালের ইন্টেনসিভ কেয়ার ইউনিটে ভর্তি করা হয়। পরে তিনি গত ৩১ ডিসেম্বর দুপুর ১২:৫৬ মিনিটে চিকিৎসকরেরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
পি এস চুন্নু ১৯৯০ সালের অক্টোবরে অস্ট্রেলিয়ায় আসেন। তাঁর গ্রামের বাড়ি খুলনার ফুলতলা উপজেলায়। তাঁর স্কুল ও কলেজ কেটেছে খুলনাতে। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগ থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন। তিনি ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জগন্নাথ হলের আবাসিক ছাত্র। চুন্নুর কোন সন্তান ছিলো না।
0 0 votes
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments