বাংলাদেশে করোনায় প্রথম একজনের মৃত্যু

  •  
  •  
  •  
  •  

প্রশান্তিকা ডেস্ক: বাংলাদেশে এই প্রথম ভয়াবহ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন একজন। তিনি ৭০ বছর বয়সী পুরুষ এবং বিদেশ থেকে আগত কারও সংস্পর্ষে এসেছিলেন বলে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) পরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা গতকাল বুধবার বিকেলে নিয়মিত সংবাদ ব্রিফিংয়ে এই তথ্য জানিয়েছেন।

অধ্যাপক মীরজাদী ফ্লোরা

মীরজাদী সেব্রিনা বলেন, ওই ব্যক্তি উচ্চ রক্তচাপ, ডায়াবেটিস ও কিডনির সমস্যায় ভুগছিলেন এবং তাঁর হার্টে স্টেন্ট পরানো ছিল।
আইইডিসিআর’র প্রতিদিনের সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, বাংলাদেশে এখন পর্যন্ত ১৪ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। গতকাল মঙ্গলবার পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ১০। কিন্তু গত ২৪ ঘণ্টায় এই সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৪। নতুন আক্রান্ত চারজনের মধ্যে একজন নারী ও তিনজন পুরুষ। একজন আগে আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে ছিলেন। আর বাকি তিনজন বিদেশ থেকে এসেছেন। তাঁদের মধ্যে দুজন ইতালি থেকে এবং একজন কুয়েত থেকে এসেছেন।সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়া থেকে একটি বিশেষ ট্রেনিং শেষে দেশে ফিরেছেন নিম্ন আদালতের ৩০ বিচারক। তাদেরকে ১৪ দিনের হোম কোয়ারিন্টাইনে রাখা হয়েছে। অন্যদিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চার চিকিৎসকও আইসোলেশনে রয়েছেন।

সারা বিশ্বের প্রায় সব ক’টি দেশেই করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে। এটির উৎপত্তি স্থল চীন হলেও ইউরোপের ইতালী এবং স্পেন এখন এপিসেন্টার বা সবচে’ আক্রান্ত এবং মৃতের সংখ্যায় পরিণত হয়েছে। সারাবিশ্বে ১ লক্ষ ৮০ হাজার মানুষ আক্রান্ত এবং ৭ হাজার ৫শ মানুষ মারা গেছে।

উল্লেখ্য, গতকাল অস্ট্রেলিয়ায় প্রধানমন্ত্রী ক্যানবেরা থেকে দেশবাসীর উদ্দেশ্যে করোনা বিষয়ে বক্তব্য রাখেন। এসময় তাঁকে সহযোগিতা করেন দেশটির স্বাস্থমন্ত্রী। পুরো দেশে এপর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৪৫৪ জন। তিনি স্কুল কলেজ বন্ধ না রাখার পক্ষে বলেছেন। কোন অস্ট্রেলিয়ানকে বিদেশ ভ্রমণ থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে। বিদেশ থেকে আগত প্রত্যেককে অবশ্যই ১৪ দিনের হোম আইসোলেশন বাধ্যতামূলক। এতে অমান্যকারীদের কঠোর শাস্তি এবং অর্থদণ্ডের ঘোষণা দেয়া হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী করোনা আক্রমণে অন্তত ছয়মাস অস্ট্রেলিয়ানদের কঠোর নিয়ম কানুন মেনে চলার ইঙ্গিত দিয়েছেন।

0 0 votes
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments