বাড়তি টিকা বাংলাদেশে পাঠানোর আবেদন জানিয়ে ই-পিটিশন, আজ শেষ দিন

  •  
  •  
  •  
  •  

মিতা চৌধুরী, মেলবোর্ন থেকে : করোনার বৈশ্বিক মহামারীর সময়ে যে কয়টি টিকা আস্থাভাজন তার মধ্যে অক্সফোর্ড আ্যস্ট্রাজেনিকা অন্যতম, আর অস্ট্রেলিয়া সেই স্বল্প কিছু দেশের একটি যারা স্থানীয়ভাবে উৎপাদন করছে এই জনপ্রিয় আস্থাভাজন টিকা। অস্ট্রেলিয়া তার নিজ ঘরোয়া প্রয়োজন মিটিয়ে প্রতিবেশী বেশ কিছু দেশেও পাঠাচ্ছে এই আস্ট্রেজেনিকা ভ্যাকসিন, যার মধ্যে ফিজি, পিএনজি ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অন্যান্য দ্বীপদেশ অন্যতম।

আমরা যারা বাংলাদেশী কিন্তু প্রবাসে আছি তারা মোটামুটি সবাই ওয়াকিবহাল আছি যে ১৬কোটির জনসংখ্যার দেশ বাংলাদেশে এখনো আরো অনেক টিকার প্রয়োজন। ইতিমধ্যে মোট ১৮৬৭৫৬৭২ জন (সূত্র রয়টার্স, ১০ অগাস্ট ২০২১) কোভিড  টিকা নিয়েছে, সংখ্যাটা অনেক বড় হলেও আসলে মোট জনগোষ্ঠীর মাত্র ৫.৭% এই টিকা নিয়েছে। বাংলাদেশী হাই কমিশন অস্ট্রেলিয়া ও অস্ট্রেলিয়ায় বসবাসকরি বাংলাদেশীদের বেশকিছু সংগঠন মিলে অস্ট্রেলিয়ার সংসদে একটি পিটিশন উপস্থাপন করেছে, যেখানে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন সমীপে আবেদন করা হয়েছে অস্ট্রেলিয়াতে উৎপাদিত আস্ট্রেজেনিকা ভ্যাকসিনের উদ্বৃত্ত বাংলাদেশে পাঠাতে।

একটি চমৎকার উদ্যোগ প্রবাসী বাংলাদেশী হিসেবে, বাংলাদেশের ও বাংলাদেশের জনগণের জন্য। এই পিটিশনের বিলটি অস্ট্রেলিয়ার ফেডারেল সংসদে পাশের জন্য উঠবে আগামী ১২ অগাস্ট, কিন্তু বিলটি পাশ হতে অন্তত ১০ হাজার স্বাক্ষর লাগবে এই পিটিশনের পক্ষে। কিন্তু অত্যন্ত হতাশার কথা যে সেই ১০হাজার স্বাক্ষর এখনো পড়েনি পিটিশনটির পক্ষে। আমার এই লেখা লিখা পর্যন্ত ৬৭৯৩ টি সাক্ষর জমা পড়েছে, অর্থাৎ এখনো আরো তিন হাজারের অধিক স্বাক্ষরের ঘাটতি আছে।  কিন্তু আমাদের হাতে সময় আছে খুবই কম। তবে কি আমার আপনার আমাদের মাতৃভূমির মানুষগুলো টিকা পাবে না।

আমি আমার পরিচিত অনেককেই আফসোস করতে দেখি এই বলে যে, দেশের এমন সময় যদি কিছু করতে পারতাম। আমরা কিন্তু চাইলেই পারি, এই পিটিশনের জন্য সাক্ষর দেয়া বা সাক্ষর সংগ্রহ করাটাও দেশের জন্য কিছু করা। আমাদেরই বাবা মা, ভাই বোন, প্রিয়জন আমাদের পরিবার পাবে এই টিকাগুলো! আমরা দেশের কথা, পরিবারের কথা চিন্তা করে হলেও আসুন এই পিটিশনে সাক্ষর করি। সমগ্র অস্ট্রেলিয়াতে নিশ্চয়ই ১০হাজারের অনেক বেশি বাংলাদেশী আছে, সেখানে শুধু কিছু স্বাক্ষরের জন্য এমন একটি মহৎ উদ্যোগ সংসদে পাশ হবে না তা নিশ্চই বাংলাদেশী হিসেবে আমরা কেউই চাই না। আসুন আমরা এই মহতী উদ্যোগের অংশীদার হই, পিটিশনে স্বাক্ষর করি এবং অন্যকেও স্বাক্ষর করতে বলি।

পিটিশনে স্বাক্ষর সংগ্রহের লিংকটি আজ ১২ আগস্ট শেষ হবে।
লিংক: https://www.aph.gov.au/e-petitions/petition/EN2869

0 0 votes
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments