মেলবোর্নে একই মঞ্চে ‘বুড় সালিকের ঘাড়ে রোঁ’এবং ‘ভৌতিক’

  •  
  •  
  •  
  •  

 248 views

পোস্টার ডিজাইনঃ তারেক নূরুল হাসান

প্রশান্তিকা ডেস্ক: মেলবোর্ন ভিত্তিক সাংস্কৃতিক সংগঠন কথকঃমেলবোর্ন তাদের ১৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে মঞ্চায়ন করছে মাইকেল মধুসূদন দত্তের কালজয়ী নাটক ‘বুড় সালিকের ঘাড়ে রোঁ’ এবং সৌমিত্র বসুর শ্রুতিনাটক অবলম্বনে নাটক ‘ভৌতিক’।দুটি নাটকেরই দুটি শো অনুষ্ঠিত হবে মেলবোর্নের চ্যান্ডলার কমিউনিটি সেন্টারে আগামী ২১শে এবং ২২শে মার্চ বিকাল ৫ টায়।
ভূতুড়ে আবহ এবং ভূতের গল্পের আড়ালে মানব মনের এক অপূর্ব চিত্রকল্প এঁকেছেন নাট্যকার সৌমিত্র বসু তাঁর ‘ভৌতিক’ নাটকে। নিঃসহায় মানুষও যখন সহায় সম্বলের নিশ্চয়তা পায়, অধিকতর পাবার বাসনা তাকে তাড়িত করে। আরো পাবার সহজাত এই প্রবৃত্তি নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ হলে সেই মানুষটিও একসময় হয়ে উঠতে পারে নিপীড়ক।এই বিষয়টিকে উপজীব্য করেই লেখা শ্রুতিনাটক ‘ভৌতিক’। নাটকটিকে মঞ্চ উপযোগী রূপদান করে প্রথমবারের মতো মঞ্চায়িত করছে কথকঃমেলবোর্ন। কথক আশা করছে একটি ভূতুড়ে এবং গা ছম ছম অনুভূতির পাশাপাশি মানবিক আর্দ্রতায় সিক্ত হবেন দর্শক।নাটকটির নির্দেশনা দিয়েছেন জাকিরুল হায়দার।
১৮৬০ সালে মাইকেল মধুসূদন দত্ত রচিত প্রহসন ‘বুড় সালিকের ঘাড়ে রোঁ’। প্রহসন সাধারনভাবে কমেডি জাতীয় নাটক। তামাশা, পরিহাস আর চটুল সংলাপের মাধ্যমে সমাজের অনাচারকে আঘাত করেছে নাটকটি। উঁচুতলার মানুষের শোষণ, ভন্ডামী ও লাম্পট্যের চিত্র, তাদের পদলেহনকারী সুবিধাভোগী শ্রেণী, ব্রিটিশ শাসনের প্রভাব, সাম্প্রদায়িক চিত্র, এবং তৎকালীন সমাজে পরিবর্তনের হাওয়া এর সবকিছুই তীব্র হাস্যরসের মাধ্যমে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। মাইকেল তাঁর সমাজ সচেতনতা, পাশ্চাত্য নাট্যরুচি এবং সংস্কৃত জ্ঞানের এক অপূর্ব মেলবন্ধন ঘটিয়েছেন এই নাটকে।আন্তর্জাতিক নাট্যপরিসর থেকে পিছিয়ে থাকা বাংলা নাটকের ইতিহাসে মাইকেলের এই সৃষ্টি এক মাইলফলক। সেই সময়ের আবহকে ধারন করেই শুভ্র শামসুদ্দোহার নির্দেশনায় ‘কথক মেলবোর্ন’ মঞ্চায়িত করছে নাটকটি। উল্লেখ্য, এটি কথকঃমেলবোর্ন এর চতুর্থ নাট্য প্রযোজনা। এর আগে অন্যান্য নাট্য প্রযোজনার মধ্যে যাত্রাপালা ‘নবাব সিরাজ-উদ-দৌলা’ অন্যতম। নাটক মঞ্চায়ন ছাড়াও কথকঃমেলবোর্ন কবিতা এবং সংগীত নিয়ে নিয়মিত নিরীক্ষাধর্মী কাজ করে থাকে।
0 0 votes
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments