সহজিয়া শহরের ধুলায় ছাপানো লেখা । লালন নূর

  •  
  •  
  •  
  •  

ধুলায় ছাপানো লেখা

কুরুশকাঁটাতে জরি ও ফিতাতে
রঙিন সুতাতে ফুটে আছে ফুল
দধি ও মাঠাতে জিগার আঠাতে
নির্বেদ পাঠাতে নিজঘরে হুল

ফুটিয়েছি ফিরে তোমার জিকিরে
দোয়া ও ফিকিরে এঁকে দিয়ে রেখা
বোবার বুলিতে তোমার রুলিতে
পথের ধুলিতে ছাপিও এ লেখা

বাঁশি ও সানাই

ভেসে কোথা যাবে ডালিমে ও ডাবে
অমৃত সে ভাবে গরলের নুন
চেনা বালুচরে সুখে ও ফাঁপরে
যদি খসে পরে পান থেকে চুন

গাঙুরের জলে ভেলা ভেসে চলে
মৃদু জামফলে পাখি বেঁচে ওঠে
রাধিকা-কানাই বাঁশি ও সানাই
আজো বাজে নাই গোপালের ঠোঁটে

লখিন্দরের নদীভ্রমণ

তোমার মুগুরে চিনিতে ও গুড়ে
লেবুগাছ জুড়ে শরবত ভাসে
বেসুরো সে তানে ঘরে ও বিতানে
সাধু-শয়তানে ফুটে ক্যানভাসে

শুধু অনুবাদে নদী-সংবাদে
পূজার বিবাদে চিটা হয়ে নামি
গাঙুরের নিতা মনসা-পালিতা
ফুল হলো চিতা – বেহুলার স্বামী

উনুনের কালি

মহা-ছোট নীতি অভিষেক গীতি
শুধু রাজনীতি সালিশের ঘামে
আরো মধু চাই তালগাছ-রাই
কোনো আঠা নাই সরকারী খামে

প্রকাশের গুণে আনাজে ও নুনে
তোমার উনুনে আগুনের ফালি
জ্বলে না বাতাসে খেলিবার তাসে
অতি ছোট শ্বাসে মুছে যায় কালি

খেলাপি ঋণের মাদুলি

জ্বরে ও পারদে ঘোরের গারদে
শেফালী শারদে ফুলেরা ধ্বনিত
বিবিধ সুদিনে পাখিতে ও তৃণে
খেলাপী সে ঋণে অভাবজনিত

রণে ও রণনে পূঁজির ত্বরণে
তোমার চরণে ফুলেরা আধুলি
ভূমি ও পাতালে মাজারে-চাতালে
লোভী ও মাতালে তোমার মাদুলি

বালুভাজা খই

ভাটিয়ালি গানে কেন নাড়ি টানে
এর যত মানে সবাই বোঝে না
নাড়ি মানে হলো শুধু টলোমলো
যারা বোঝো বলো – তাধিন তা রে না

পানির জেলেরা মেয়ে ও ছেলেরা
বুড়া আঙুলেরা হলো টিপসই
নামাজে-জামাতে পাপীকে থামাতে
ধানে ও ধামাতে বালুভাজা খই

সহজিয়া অঞ্চল

গুল্ম-লতা-বিলে পাখিতে ও চিলে
কিছুটা তো ছিলে দুধের বাটিতে
কচুরিপানাতে পাখা ও ডানাতে
এ কথা জানাতে মেঘে ও মাটিতে

তুমি থাকো ভীড়ে ধানে ও শিশিরে
যদি আসে ফিরে লতাটি চঞ্চল
কিছুটা আমাতে সিসা ও তামাতে
সহজ জামাতে পাতিও অঞ্চল

নুনভাত

মুখে মধু দিও হাতে তুলে নিও
সখা ও সখিও যদি রাজি থাকে
মেহেদির লালে যারা সে সকালে
মানুষের ডালে পাখি হয়ে ডাকে

অতি পোড়া মাটি, জানি হবো মাটি
ধুলিতেই খাঁটি মানুষের গুণ
মাটি ও মাথাতে ভেদ নাই তাতে
পারো যদি ভাতে মেখে দিও নুন

অলংকরণ: আসমা সুলতানা মিতা 

লালন নূর
২০০৬ থেকে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী। প্রবাসের প্রায় ১১ বছর কেটেছে পেনসিলভেনিয়া অঙ্গরাজ্যের ফিলাডেলফিয়া মহানগরীর কাছে হ্যাটফিল্ড নামের একটি ছোট শহরতলীতে। কর্মসূত্রে বর্তমান নিবাস ওহাইও অঙ্গরাজ্যের ক্লিভল্যান্ড শহরে।

0 0 votes
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments