সিডনিতে ব্যাডমিন্টন এসোসিয়েশনের গ্রান্ডফাইনাল অনুষ্ঠিত, রবিন-শাহেদ চ্যাম্পিয়ন

  •  
  •  
  •  
  •  

প্রশান্তিকা ডেস্ক: গত ৪ আগষ্ট রোববার বাংলাদেশ ব্যাডমিন্টন প্লেয়ার্স এসোসিয়েশন আয়োজিত বাৎসরিক ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্টের গ্রান্ডফাইনাল অনুষ্ঠিত হয়। লাকেম্বার পেরিপার্কে সপ্তাহব্যাপি আয়োজিত এবারের আসরের শিরোপাজয়ী জুটি রবিন ও শাহেদ। এই জুটি পঞ্চমবারের মতো অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়। ফাইনালে তারা হাসান ও আরাফাত জুটিকে সরাসরি সেটে পরাজিত করেন।

পেরিপার্কের ইনডোর কোর্টে অনুষ্ঠিত ফাইনাল খেলা উপভোগ করেন দেড় শতাধিক ক্রীড়া পিপাসু প্রবাসী বাঙালী। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্টেট এমপি জিহাদ দিব। এছাড়াও বিশেষ অতিথি লিবারেল পার্টি থেকে এমপি প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী রশিদ ভূঁইয়া, লোকাল কাউন্সিলর মোহাম্মদ হুদা সহ দেড় শতাধিক ক্রীড়া অনুরাগী দর্শক সেমিফাইনাল ও ফাইনাল খেলা উপভোগ করেন। খেলা শেষে পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠান শুরু হয়। শুরুতেই এসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট শামীম হোসেন প্রধান অতিথি, বিশেষ অতিথি ও আগত দর্শকদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন এবং চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সআপ দলকে অভিনন্দন জানান। এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে তিনি প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথিবৃন্দর হাতে তুলে দেন বিশেষ সম্মাননা ক্রেস্ট।

প্রধান অতিথি জিহাদ দিব তার বক্তব্যে বিশেষ ভাবে ধন্যবাদ জানান বাংলাদেশ ব্যাডমিন্টন প্লেয়ার্স এসোসিয়েশনকে তাদের এই সফল টুর্নামেন্ট আয়োজনের জন্য। তিনি আরো বলেন, টানা দশ বছর এমন একটি টুর্নামেন্ট চালানো একটা কমিউনিটির জন্য বিশেষ কিছু। তিনি বাংলাদেশি কমিউনিটিকে ধন্যবাদ জানান তাদের সহযোগিতার জন্য। তিনি অভিনন্দন জানান চ্যাম্পিয়ন সহ অংশগ্রহণকারী সকল খেলোয়ারদেরকে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন লোকাল এমপি জিহাদ দিব

ইভেন্ট কোঅর্ডিনেটর এ বি কে এম শাহীন ও মাহমুদুল হাসানের উপস্থাপনায় বিশেষ ভাবে ধন্যবাদ জানানো হয় সকল খেলোয়াড়কে, যাদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ এই টুর্নামেন্টকে সফল করে তোলে। এছাড়াও বিশেষ ভাবে ধন্যবাদ জানান হয় সকল ভলান্টিয়ার ও এসোসিয়েশনের সকল সদস্যদেরকে। অতঃপর এসোসিয়েশন সভাপতি একে একে সকল স্পনসরদের তাদের সহযোগিতার জন্য ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন এবং তাদের হাতে স্মারক ক্রেস্ট তুলে দেন। ব্লু-আইস লাকেম্বার সৌজন্যে রাইজিং স্টার জুটি ও কনিষ্ঠতম প্রতিযোগীকে দেয়া হয় বিশেষ ট্রফি। এবারের আসরের ফেয়ার প্লে ট্রফি জিতে নেয় বাপ্পি-টুটুল জুটি। এবারের চার সেমিফাইনালিস্ট ছিলেন রবিন-শাহেদ, হাসান-আরাফাত, রাকেশ-অনিক এবং বাপ্পি-টুটুল। দুজন আম্পায়ার (বিপুল ও বাবু) এবং দুজন ভলান্টিয়ার (জনাব হেলাল ও জনাব মিরাজ হোসেন) কে প্রদান করা হয় ধন্যবাদ খচিত মেডেল।

বিপুল করতালির মাধ্যমে চ্যাম্পিয়ন জুটির হাতে চ্যাম্পিয়ন ট্রফি তুলি দেন প্রধান অতিথি জিহাদ দিব। Pro -raquet Hurstville এর সৌজন্যে প্লেয়ারদের জন্য বিশেষ লটারীর ব্যবস্থা করা হয়। pro-raquet এর পক্ষ থেকে Mr. pattrick বিজয়ীদের হাতে ডিসকাউন্ট ভাউচার তুলে দেন। আগত দর্শকরা সহ সকলের মাঝে গ্রামীণ রেস্টুরেন্টের সৌজন্যে প্যাকেট ডিনার বিতরণ করা হয়। এবারের আসরের স্পনসর ছিল COBUILDS, BLUE-SKY, ROYAL CITY SOLICITORS, সুপ্রভাত সিডনি, GO-PRO AUTOMOTIVE, AUSGREEN SOLAR, MAGPIE LANDSCAPING, RAY WHITE LAKEMBA , ANNAND TRAVEL, BANGLADESH PALACE, A INSTANT PRINTING, STAR KIDS CHILD CARE, KIDS R US FAMILY DAY CARE, GRAMEEN RESTAURANT, EXPRESS TAX SOLUTIONS, EYE2EYE SECURITY SUPPLY & INSTALLATIONS এবং RIG।
সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।