সিডনিতে স্বাধীনতা দিবসে ‘শতকন্ঠে সোনার বাংলা’ অনুষ্ঠিত

  •  
  •  
  •  
  •  

প্রশান্তিকা রিপোর্ট: ‘আমার সোনার বাংলা, আমি তোমায় ভালোবাসি’ বাংলাদেশের সবচেয়ে প্রিয় এই সঙ্গীত আমাদের জাতীয় সঙ্গীত গেয়ে মহান স্বাধীনতা দিবস কে স্মরণ করলেন দেশপ্রেমে উজ্জীবিত শতমানুষ। সংস্কৃতিকর্মী ও সাংবাদিক আমিনুল ইসলাম রুবেল ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবসে ‘শত কণ্ঠে সোনার বাংলা’ ইভেন্টটির আহবান করেন। তার আহবানে সাড়া দিয়ে বিকেল থেকেই প্লাকার্ড, ফেস্টুন এবং জাতীয় পতাকায় শোভিত শিশু, কিশোর, নারী (অনেকেই লাল সবুজ পতাকার রঙে শাড়ি পড়ে আসেন), পুরুষরা জড়ো হতে থাকেন বাংলাদেশী অধ্যুসিত লাকেম্বার রেলওয়ে প্যারেডে। পুরো স্থানটিকে মনে হয়েছিলো যেনো এক টুকরা বাংলাদেশ।

লেখক ও কলামিস্ট শাখাওয়াৎ নয়ন শতকন্ঠে জাতীয় সঙ্গীত ইভেন্টটি পরিচালনা করেন। সকলে সুশৃঙ্খল ভাবে দাঁড়িয়ে গেয়ে ওঠেন ‘আমার সোনার বাংলা আমি তোমায় ভালোবাসি’। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা এনায়েতুর রাহিম বেলাল।তিনি বাংলাদেশের অগ্রযাত্রায় প্রবাসের সকলকে দেশপ্রেমের এই আহবানে উজ্জীবিত হওয়ায় স্বাগত জানান।

ইভেন্টের আহ্বায়ক আমিনুল রুবেলের সাথে কথা বলে জানা যায়, গত তিন বছর ধরে  সিডনিতে এই ইভেন্ট হয়ে আসছে। এটি আয়োজনের উদ্দেশ্য হচ্ছে শত কণ্ঠে জাতীয় সংগীত গেয়ে বাংলাদেশে স্বাধীনতা যুদ্ধে নিহত শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা জানানো।
অক্ষেপ নিয়ে রুবেল জানান, স্বাধীনতা বিরোধী চক্র অস্ট্রেলিয়াতে এখনও সক্রিয়, তারা এই ইভেন্টের নামে ফেইসবুকে কমপ্লেইন করায় স্বাধীনতা দিবসের পুরোটা সময় রুবেলের ফেইসবুক ও ইভেন্ট টি বন্ধ ছিল, তবুও প্রায় শ’খানেক লাল-সবুজে আবৃত নারী-পুরুষ ও  শিশুদের উপস্থিতিতে সিডনির বাংলাদেশী পাড়া ল্যাকেম্বা মুখরিত হয়ে ছিলো পুরো বিকেল জুড়ে।

মাথায় জাতীয় পতাকার ব্যান্ড পড়ে শিশুটির শত কন্ঠে সোনার বাংলায় অংশগ্রহণ, ছবি: নোমান শামীম।

অনুষ্ঠানে সিডনি থেকে প্রকাশিত ও প্রচারিত বিভিন্ন সংবাদপত্র, নিউজ পোর্টাল ও টেলিভিশনের সাংবাদিক, সম্পাদকেরা উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া বিভিন্ন সংগঠন এবং কমিউনিটির নেতারাও স্বতস্ফূর্ত অংশগ্রহণ করেন।

0 0 votes
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments