সিডনিতে হু হু করে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা, মৃতের সংখ্যা ৭

  •  
  •  
  •  
  •  

প্রশান্তিকা ডেস্ক: অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলস রাজ্যের সিডনিতে আজ করোনায় আক্রান্ত হয়ে একজনের মৃত্যু হয়েছে। মৃত ৭০ বছর বয়সী নারী আলোচিত রুবি প্রিন্সেস জাহাজের যাত্রী ছিলেন। রাজ্যে গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে ১৪৯ জন কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়েছে। এর মধ্যে তিনজনই একটি এজকেয়ারে থাকতেন। এ নিয়ে নিউ সাউথ ওয়েলস-এ মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৮১৮, মৃতের সংখ্যা ৭। ভিক্টোরিয়া রাজ্যে ৪১১ এবং কুইন্সল্যান্ডে ৩৯৭ সহ সমগ্র অস্ট্রেলিয়ায় ২০৪৩ জন আক্রান্ত হয়েছে। মোট মৃতের সংখ্যা ৮ জনে দাঁড়িয়েছে। নিউ সাউথ ওয়েলস’র বাইরে বাকী একজন মৃত ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়ার রাজধানী পার্থে বাস করতেন।

নিউ সাউথ ওয়েলস রাজ্যের প্রিমিয়ার গ্লাডিস পেরেজিকলিন বলেছেন, ভয়াবহ এই প্যানাডেমিকে রাজ্য এখন ক্রিটিক্যাল পর্যায়ে পৌঁছেছে। অস্ট্রেলিয়ায় যুক্তরাজ্যের মতো তিনমাসের লকডাউনে যাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন তিনি। এই মুহূর্তে ৩০ জাহাজে অন্তত ৩০০০ অস্ট্রেলীয় নাগরিক সমুদ্রে রয়েছেন।

জরুরী কাজ ছাড়া হোটেল, পাব, ক্লাব, সিনেমা হল, বীচ, ওপেরা থিয়েটারসহ অপ্রয়োজনীয় জনসংযোগ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। যেসব অস্ট্রেলিয়ান কাজ হারিয়েছেন বা স্মল বিজনেস ওয়ানার, সোল ট্রেডারদের সরকার অর্থ সহায়তা দিচ্ছে। এজন্য সর্বমোট ১৮৯ বিলিয়ন ডলার যা দেশের জিডিপির প্রায় ১০ ভাগ দেয়া হচ্ছে। আজ নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আর্ডেন্দ অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসনকে অস্ট্রেলিয়ায় বসবাসকারী নিউজিল্যান্ডের নাগরিকদের এই অর্থ সহায়তা দেয়ার অনুরোধ করেন।
অস্ট্রেলিয়ায় কারও ভাইরাসটির উপসর্গ দেখা দিলে সংশ্লিষ্ট জিপি (সরাসরি না যেয়ে) কে ফোন অথবা করোনা ভাইরাসের ন্যাশনাল হটলাইন 1800 020 080 নাম্বারে ফোন দিতে বলা হয়েছে।

এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত সারা বিশ্বে সর্বমোট ৩৩৭৬০১ জন কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়েছেন, ১৬৫০৫ মারা গেছেন এবং প্রায় ১ লক্ষ মানুষ সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন। সবচে আক্রান্তের দেশ ইতালীতে ২৪ ঘন্টায় ৬০৬ জন মারা গেছে। এ নিয়ে দেশটিতে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬০৭৮ জনে।