স্বপ্নের সুন্দরের মানুষ ইসহাক খান

  •  
  •  
  •  
  •  

আতিকুর রহমান শুভ: মানুষটাকে চিনি সেই প্রায় তিরিশ বছর আগে থেকে। বাসায় ঢুকলেই শেলফে রাখা সারিসারি বইয়ের সমাহার। আমি আসতাম বুঝেই শোবার ঘর থেকে আওয়াজ দিতেন, ‘শুভ চলে এসো ভেতরে’। একটি শোবার ঘর, তার মেঝে, তার ওপর খাট আর সেই খাটের ওপরে ছোট টেবিলের (টুলের চেয়ে একটু বড়) নীচ দিয়ে পা চালিয়ে লিখে যাচ্ছেন তিনি। এভাবে কেনো জিজ্ঞেস করতেই বলতেন, কেনো জানো না ? বিশ্বকবি এভাবেই লিখতেন, এতে আরাম হয়, ক্লান্তি আসেনা, আর এলেও এই টেবিলে মাথা রেখে একটু ঘুমিয়ে নেয়া যায়। তাঁর পাঠকদের অনেকেই হয়তো জানেননা, শুধুমাত্র লেখালেখি করার জন্য তিনি সরকারী চাকুরী থেকে ইস্তফা দিয়ে ফুলটাইম লেখালেখি করছেন আজ অব্দি। মানুষটা আর কেউ নন। ইসহাক খান, গল্পকার, ঔপন্যাসিক, কলাম লেখক, নাট্যকার এবং মুক্তিযাদ্ধা। এই পরিচয়ের সবকটি শাখায় তিনি সফল হয়েছেন। আমার দেখা সেই সফল মানুষের নামটাই ইসহাক খান।

ইসহাক খান


ইসহাক খানের সর্বমোট প্রকাশিত বইয়ের সংখ্যা তিরিশটি। এবছর তাঁর পাঁচটি বই বের হয়েছে। বইগুলো হলো জয়বাংলা আমার নাম (অন্বয় প্রকাশ), আমার বাবা (য়ারোয়া প্রকাশনী), উপন্যাস সমগ্র – ১ (য়ারোয়া প্রকাশনী), ছায়া ঘাতক, পাগলা রাজার কাণ্ড। ঢাকা বইমেলায় য়ারোয়া ৩৮৩ নম্বর স্টল ছাড়াও বইগুলোর দেখা মিলবে বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে বাংলাদেশ রাইটার্স ক্লাবের ১৬ নম্বর স্টলে।

এবছর প্রকাশিত বই

প্রশান্তিকার সঙ্গে আলাপ কালে ইসহাক খান বলেন, ‘লেখালিখি শুরু করেছি ১৯৬৯ সাল থেকে। তবে সিরিয়াসলি শুরুটা ১৯৭৭ সাল থেকে। সেই হিসেবে প্রায় ৪০ বছর হলো’। এই দীর্ঘ লেখক জীবনে অনেক ঘাত প্রতিঘাত এসেছে। কিন্তু কখনও তাঁর কলম থামেনি। এরকম প্রজ্ঞা ও সহনশীলতা খুব কম লেখকের মধ্যেই রয়েছে।

সবচেয়ে প্রিয় বই কোনটি, এ প্রশ্নের উত্তরে ইসহাক খান বলেন, “প্রিয় বই এখনো লিখতে পারিনি। তবে প্রকাশিত লেখার মধ্যে পছন্দের গল্প ‘স্বপ্নের সুন্দর’ এবং উপন্যাসের মধ্যে ‘দূর যাত্রা’। তিনি আরও বলেন, “মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে দীর্ঘ লেখার ইচ্ছে আছে। যুদ্ধ পরবর্তী সময়কে ধারণ করে লিখছি একটি দীর্ঘ লেখা, ‘নেতার মৃত্যুর পর’। আগামী বছর প্রকাশিত হবে আশা করি”।
ইসহাক খান একবার আমাকে বলেছিলেন, একবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে তার হলরুমে প্রিয়বন্ধু অকাল প্রয়াত কবি রুদ্র মুহম্মদ শহীদুল্লাহর সঙ্গে তাল দিয়ে সেই বিখ্যাত গল্প ‘স্বপ্নের সুন্দর’ লিখেছিলেন আর রুদ্র লিখেছিলেন তার বিখ্যাত কবিতা ‘ইশতেহার’। আমি দায় নিয়ে বলছি, স্বপ্নের সুন্দরের মতো এতো বলিষ্ঠ গল্প আমি এখনও পড়িনি।
ইসহাক খান আরও লিখুন। স্বপ্নের সুন্দরের মানুষ ইসহাক আরও সুন্দর হয়ে উঠুক, শুভ কামনা নিরন্তর।


অমর একুশে বইমেলায় শিশু কিশোরীদের সঙ্গে লেখক

বিশেষ দ্রষ্টব্য: ইসহাক খানের এবার প্রকাশিত ‘জয় বাংলা আমার নাম’ সহ অন্যান্য গ্রন্থ সিডনি বইমেলায় প্রশান্তিকা বইঘরে পাওয়া যাবে। গত কয়েকবছরে আমরা তাঁর অনেক গ্রন্থ এনেছি এবং পাঠকপ্রিয় হয়েছে।