‘স্বাধীন কন্ঠ’ পত্রিকার বর্নাঢ্য বর্ষপূর্তী উদযাপন

  •  
  •  
  •  
  •  

প্রশান্তিকা ডেস্ক: অস্ট্রেলিয়া থেকে প্রকাশিত বাংলা পত্রিকা ‘স্বাধীন কন্ঠ’ চতুর্থ বর্ষে পদার্পন করেছে। গত ২৭ অক্টোবর ব্যাংকসটাউনের লিবার্টি প্যালেসে জমকালো অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বর্ষপূর্তী পালন করে পত্রিকাটি। প্রতিষ্ঠার শুরু থেকে সকল শুভানুধ্যায়ী ও স্পন্সরদের সাথে নিয়ে নিয়মিত বর্ষপূর্তী পালন করে আসছে স্বাধীন কন্ঠ পরিবার।

স্বাধীন কন্ঠ পরিবারের সাথে স্টেট এমপি জিহাদ দীব

বর্ষপূর্তী অনুষ্ঠান শুরু হয় অস্ট্রেলিয়া ও বাংলাদেশের জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে । এরপরে স্থানীয় শিল্পী মিঠু ও তার দল গান পরিবেশন করেন। পরে স্বাধীন কন্ঠ পত্রিকার সম্পাদক মিজানুর রহমান সুমন অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য প্রদান করেন। তিনি বলেন, দেশ থেকে হাজার মাইল দূরে এসে বাংলা সংস্কৃতি চর্চায় একটি পত্রিকার কোনো বিকল্প নেই। তিনি বলেন , দেশের শত বিভক্তির মাঝেও স্বাধীন কন্ঠ পুরোপুরি নিরপেক্ষ থাকার চেষ্টা করেছে। তিনি স্বাধীন কন্ঠের সাথে শুধু বাংলাদেশীই নয় পাশাপাশি উপমহাদেশের অন্যান্য কম্যুনিটির সম্পৃক্ততার কথাও উল্লেখ করেন। এরপরে পত্রিকার পক্ষ থেকে তাদের নিয়মিত লেখকদের শুভেচ্ছা ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। নিয়মিত লেখকদের মধ্যে নির্মল পাল, নাইম আবদুল্লাহ , জুম্মন হোসেন,কাজী সুলতানা সিমি ও বেলাল ঢালীকে সম্মাননা জানানো হয়। নাইম আবদুল্লাহর পক্ষে ক্রেস্ট গ্রহণ করেন সাংবাদিক নেতা আবদুল মতিন। লেখকদের ক্রেস্ট প্রদান করেন স্বাধীন কন্ঠ মিডিয়ার চেয়ারম্যান কাজী এন সাফা আলমগীর ও কাজী আরমান।

স্বাধীন কন্ঠের বর্ষপূর্তী উপলক্ষে কেক কাটা হয়

এরপরে লেবার পার্টির এমপি ও শ্যাডো মিনিস্টার জিহাদ দীব , কাউন্সিলর শাহে জামান, কাউন্সিলর মাসুদ চৌধুরী সহ স্বাধীন কন্ঠ পরিবারের কাজী আরমান, কাজী আলমগীর ও মিজানুর রহমান সুমন উপস্থিত থেকে স্পন্সরদের একে একে সম্মাননা প্রদান করেন। অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের প্রখ্যাত শিল্পী আপেল মাহমুদ। অনুষ্ঠানে অস্ট্রেলিয়ার বাংলাদেশী কম্যুনিটির বিভিন্ন পেশার পাঠকদের মতামত তুলে ধরা হয়। শুভেচ্ছা বার্তা পাঠান এমপি টনি বার্ক ও বাংলাদেশের তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

অনুষ্ঠানে গান গাইছেন মিঠু ও তাঁর দল

অনুষ্ঠানের শেষের দিকে বক্তব্য রাখেন স্বাধীন কন্ঠের প্রেসিডেন্ট কাজী আরমান ও চেয়ারম্যান কাজী এন সাফা আলমগীর। তারা স্পন্সরদের ধন্যবাদ জনান। পাশাপশি তাদের ডাকে সাড়া দিয়ে উপস্থিত হওয়ার জন্য উপস্থিত অতিথিদের আন্তরিক শুভেচ্ছা ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত সকলকে নিয়ে বর্ষপূর্তী উপলক্ষে কেক কাটা হয়। অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন শুভজিৎ ভৌমিক।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।