স্বাস্থ্যবিধি মেনে আগামী বইমেলা ঠিক সময়ে অনুষ্ঠিত হবে: হাবিবুল্লাহ সিরাজী

  •  
  •  
  •  
  •  

প্রশান্তিকা রিপোর্ট: বাংলা একাডেমীর মহাপরিচালক কবি হাবিবুল্লাহ সিরাজী বলেন, ২০২১ সালের অমর একুশে গ্রন্থমেলা সঠিক সময়েই অনুষ্ঠিত হবে। এই জন্য চলমান করোনা সংকটের কারণে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে বলে তিনি জানান। করোনা অতিমারির কারণে বিশ্বের নানা দেশে অনেক বইমেলা স্থগিত বা বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। সঙ্গত কারণেই জল্পনা- কল্পনা ছিলো ঢাকায় একুশে বইমেলার ভবিষ্যৎ নিয়েও। মহাপরিচালক এই প্রথম দৃঢ়চিত্তে প্রশান্তিকার একটি লাইভে এসে বইমেলা হচ্ছে বলেই ঘোষণা দিলেন।

হাবিবুল্লাহ সিরাজী, মহাপরিচালক, বাংলা একাডেমী।

গত ২৬ সেপ্টেম্বর শনিবারে অস্ট্রেলিয়া থেকে প্রকাশিত বাংলা কাগজ ‘প্রশান্তিকা’ আয়োজিত লাইভ অনুষ্ঠানে কবি ও কলামিস্ট অজয় দাশগুপ্ত আমন্ত্রিত অতিথি বাংলা একাডেমীর মহাপরিচালক কবি হাবিবুল্লাহ সিরাজীকে প্রশ্ন করেন, “করোনা বহুকিছু কেড়ে নিয়েছে, আসছে একুশের বইমেলাও কি কেড়ে নেবে?” এই প্রশ্নের জবাবে হাবিবুল্লাহ সিরাজী বলেন, “ঢাকায় একুশের বইমেলা পূর্বনির্ধারিত সময়েই অনুষ্ঠিত হবে। গোথেনবার্গ, লন্ডন বইমেলা স্থগিত হয়ে গেছে, জার্মানির ফ্রাঙ্কফোর্ট বইমেলা জনসম্মূখে না হয়ে ভার্চুয়ালি হচ্ছে, কলকাতা আন্তর্জাতিক বইমেলা কতৃপক্ষ এক মাস পিঁছিয়েছেন। তারা আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারী থেকে ১০ মার্চ পর্যন্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।”

প্রশান্তিকা আয়োজিত লাইভ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথি কবি হাবিবুল্লাহ সিরাজী, অজয় দাশগুপ্ত, লুতফুন নাহার লতা, রাশেদ হাসান। সঞ্চালনায় প্রশান্তিকার এডেলেইড প্রধান তানজিনা তাইসিন।

তিনি আরও বলেন, “ বাংলাদেশের অমর একুশে গ্রন্থমেলা আমরা পূর্বনির্ধারিত সময়ে করার লক্ষ্যে সরকারের বিভিন্ন পর্যায়ে, মন্ত্রনালয়ে, সৃজনশীল পুস্তক প্রকাশক সমিতির সকলের সাথে কথা বলেছি। আমরা কাগজে বিজ্ঞাপন দিয়েছি- যারা এই মেলায় অংশ নেবেন তারা যেনো আগ্রহপত্র পূরণ করে জমা দেন। আমরা সেটাতে বিপুল সাড়া পেয়েছি। সেই আগ্রহের ওপর ভিত্তি করে অক্টোবরের প্রথম দিকে মেলার পরিসর এবং অন্যান্য বিষয় নিয়ে পরিকল্পনা গ্রহণ করা হবে।”
মহাপরিচালক আরও বলেন, “২০২১ সালের বইমেলা হবে স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীকে উপলক্ষ্য করে। আমাদের প্রত্যাশা বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবর্ষ এবং স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীকে এই মেলার মাধ্যমে একসূত্রে গাঁথতে পারব। স্বাস্থ্যবিধি মেনেই এই মেলা অনুষ্ঠিত হবে।” দেশে বিদেশে থাকা সকল বাঙালি এই মেলায় অংশ নিতে পারবেন বলে তিনি প্রত্যাশা করেন।

প্রশান্তিকা লাইভে ‘…রয়েছে বিশ্বলোক’ শিরোনাম অনুষ্ঠানে কবি হাবিবুল্লাহ সিরাজী ছাড়াও অতিথি হিসেবে আরও উপস্থিত ছিলেন কবি ও কলামিস্ট অজয় দাশগুপ্ত, গুণী অভিনয় ও আবৃত্তি শিল্পী লুতফুন নাহার লতা এবং বাচিকশিল্পী রাশেদ হাসান। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন প্রশান্তিকার এডেলেইড প্রধান তানজিনা তাইসিন।

0 0 votes
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments