হাজী সেলিমের ছেলের কারাদণ্ড

  •  
  •  
  •  
  •  

প্রশান্তিকা ডেস্ক: বিদেশী মদ, ওয়াকিটকি সহ অবৈধ দ্রব্য রাখার দায়ে সাংসদ হাজী সেলিমের ছেলে ইরফান সেলিমকে এক বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন র্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। গত রোববার রাতে নৌবাহিনীর কর্মকর্তাকে মারধরের ঘটনায় মামলা হওয়ার ইরফান সেলিম ও তাঁর দেহরক্ষী জাহিদুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করেছে র্যাব। বিদেশি মদ পানের জন্য ছয় মাস ও বাসায় অবৈধ ওয়াকিটকি রাখার দায়ে আরও ছয় মাসসহ এক বছর করে এই দুজনকে কারাদণ্ড দিয়েছেন  র্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

হাজী সেলিমের বাসায় অভিযান শেষে গনমাধ্যমে ব্রিফিং করছে র্যাব।

জানা গেছে, গতকাল সোমবার দুপুরে চকবাজারে হাজী সেলিমের বাসায় অভিযান করে র্যাব। এ সময় সাংসদ হাজী সেলিম বাসায় ছিলেন না। অভিযান শেষে সন্ধ্যা ৭টার দিকে গ্রেপ্তার হওয়া দুজনকে নিয়ে ওই বাসা থেকে বেরিয়ে যান অভিযানে অংশ নেয়া র্যাব সদস্যরা। সন্ধ্যায় র‍্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক লে. কর্নেল আশিক বিল্লাহ বলেন, অভিযানের সময় বাসা থেকে দুটি বিদেশি পিস্তল, ইয়াবা, বিদেশি মদ, ১০ ক্যান বিয়ার, হ্যান্ডকাপ, অনুমোদনহীন ৩৮টি ওয়াকিটকি ও সেল উদ্ধার করা হয়েছে। তিনি আরও বলেন, এই দুজনের বিরুদ্ধে অস্ত্র ও মাদক আইনে আরও দুটি নিয়মিত মামলা করা হবে।

গত রোববার রাতে ইরফান সেলিম ও দেহরক্ষীর হাতে প্রহৃত হন নৌবাহিনীর কর্মকর্তা।

গত রোববার রাত ৮টার দিকে রাজধানীর মিরপুর সড়কের কলাবাগান ক্রসিংয়ের কাছে মারধরের শিকার হন নৌবাহিনীর কর্মকর্তা ওয়াসিফ আহম্মেদ খান। এসময় তিনি পাশের দোকান থেকে বই কিনে স্ত্রী কে নিয়ে মোটরসাইকেলে যাচ্ছিলেন। এসময় তাঁর মোটরসাইকেলকে ধাক্কা দেয় সংসদ সদস্যের স্টিকার লাগানো একটি গাড়ি।
এরপর গাড়িটি থেকে কয়েকজন ব্যক্তি নেমে ওই কর্মকর্তাকে মারধর করেন। এ ঘটনায় গতকাল সোমবার সকাল পৌনে আটটার দিকে রাজধানীর ধানমন্ডি থানার একটি মামলা হয়। হাজী সেলিমের ছেলে ইরফানসহ চারজনের নাম উল্লেখ করে মামলাটি করেন মারধরের শিকার নৌবাহিনীর কর্মকর্তা ওয়াসিফ আহম্মেদ।

0 0 votes
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments