১০ সেপ্টেম্বর গানে গানে জোছনার সিজন-৩ নিয়ে আসছেন আতিক ও মিতা হেলাল

  
    
প্রশান্তিকা ডেস্ক : আতিক হেলাল ও আরফিনা মিতা সিডনির জনপ্রিয় ও নান্দনিক শিল্পী দম্পতি। গানে গানে জোছনা সিরিজের তৃতীয় আসরে তারা দর্শক মাতাতে আসছেন আগামী ১০ সেপ্টেম্বর। গানে গানে জোছনা-৩ অনুষ্ঠিত হবে ব্যাংকসটাউনের ব্রায়ান ব্রাউন থিয়েটারে সন্ধ্যা ৬:৩০ মিনিটে।
১০ই সেপ্টেম্বরের অনুষ্ঠানে শিল্পী দম্পতির সাথে যন্ত্রসংগীতে বাজাবেন বাংলাদেশ থেকে আগত রাজীব, পাভেল, শাহরিয়ার, ইমন এবং সিডনি থেকে প্রখ্যাত তবলাবাদক অভিজিৎ ড্যান ও অনেকে।
গানে গানে জোছনার  সিজন ১ অনুষ্ঠিত হয়েছিল একই থিয়েটারে ১২ জানুয়ারি ২০১৯ সালে এবং দর্শকশ্রোতাদের অনুরোধে দ্বিতীয় অনুষ্ঠানটি হয়েছিল একই বছর ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ সালে।
আশির দশকে আতিক হেলাল বাংলাদেশের ব্যান্ড সংগীতের অন্যতম ব্যান্ড “উইন্ডস” এর ভোকালিস্ট হিসেবে সঙ্গীত জগতে আত্মপ্রকাশ করেন। উইন্ডস বামবা’র প্রতিষ্ঠাতা সদস্যদের মধ্যে ছিল একটি। এরপর থেকে এখন অবধি গান গেয়ে চলছেন। শুধু গানের শিল্পী হিসেবেই আতিক হেলাল পরিচিত নন, ভোকালের পাশাপাশি গানের বিভিন্ন শিল্পীদের গানের কম্পোজিশনে যথেষ্ট ভূমিকা রেখে চলেছেন। ১৯৯৪ সাল পর্যন্ত আতিক হেলাল বাংলাদেশে জাতিসংঘের একটি অধিদপ্তরে একজন কর্মকতা হিসেবে কর্মরত ছিলেন। বর্তমানে সিডনিতে  নিউ সাউথ ওয়েলসের ডিপার্টমেন্ট অফ কমিউনিটি এন্ড জাস্টিসে একজন কর্মকর্তা হিসেবে কাজ করছেন।
আরফিনা মিতার গানের হাতেখড়ি শৈশব থেকে প্রখ্যাত শিল্পী মাহমুদুন্নবীর কাছে। মিতা শৈশব থেকে এই পর্যন্ত বাংলাদেশের টিভিতে অনেক সংগীতানুষ্ঠানে এবং নাটকে গান গেয়েছেন। ১৯৯৭ সালে অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে থিতু হওয়ার পর থেকে এখনো গানের চর্চা চালিয়ে যাচ্ছেন। অস্ট্রেলিয়ায় বাঙালি শিল্পীদের মধ্যে আতিক ও মিতা খুবই জনপ্রিয় শিল্পী।
সিডনিতে একটি অনুষ্ঠানে কিংবদন্তী শিল্পী সাবিনা ইয়াসমিনের সাথে গান করছেন আতিক হেলাল।
‘গানে গানে জোছনা’ শুরুর আগে বাংলাদেশ আইডল নামে একটি গানের সংগঠন গড়ে তুলেছিলেন আতিক হেলাল ও আরফিনা মিতা ২০০৪ সালে। তাদের প্রথম আয়োজন ছিল সিডনিতে শিল্পীদের মধ্য থেকে নামকরা শিল্পীদের নির্বাচন করা। ৮৭ জন প্রতিযোগী সেই প্রতিযোগিতায় অংশ নেন এবং এদের মধ্যে যুগ্মভাবে প্রথম হয়েছিলেন সুশান্ত গুণ যিনি বর্তমানে কৃষ্টি ব্যান্ডের প্রধান ভোকাল এবং আরেকজন অন্তরা সিনহা যিনি অস্ট্রেলিয়ায় কলকাতা বাঙালি কমিউনিটির সেরা সংগীত শিপ্লীদের একজন।
এছাড়াও সিডনিতে বাংলাদেশের সেরা শিল্পীদের নিয়ে সিডনিতে অনেকগুলো অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন এবং তাদের সাথে যৌথভাবে গান করেন। সেরা শিল্পীদের মধ্যে অন্যতম প্রখ্যাত সংগীত শিল্পী সাবিনা ইয়াসমিন, ফেরদৌস ওয়াহিদ এবং বাংলাদেশে জন্ম নেয়া কলকাতা প্রবাসী প্রখ্যাত সংগীত শিল্পী মিতালি মুখার্জি। ধারাবাহিকভাবে সিডনিতে বাংলাদেশে থেকে  আরো কয়েকজন প্রখ্যাত সংগীত শিল্পীদের নিয়ে গানের অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন। তাদের মধ্যে অন্যতম কয়েকজনের হলেন সামিনা চৌধুরী, ফাহমিদা নবী, পার্থ বড়ুয়া, বাপ্পা মজুমদার, এস এই টুটুল, রিংকু এবং হাবিব। বাংলাদেশের অন্যতম সংগীত শিল্পী তপন চৌধুরীর সাথে  আফরিনা মিতা দ্বৈত সংগীত পরিবেশনা করেন সিডনিতে। এছাড়াও  আবৃত্তিকার শিমুল মুস্তাফার সাথেও মিতা কবিতা ও গানের মিশ্রনে দ্বৈত পরিবেশনা করেন।
সিডনিতে তপন চৌধুরীর সাথে আতিক ও মিতা হেলাল দম্পতি।
‘গানে গানে জোছনা’ সিরিজের সফলতার পরের পরিকল্পনা কি? এই প্রশ্নের জবাবে আতিক হেলাল বলেন, “এইতো অনেকদিন ধরে গান করলাম এখন নতুন প্রজন্মের শিল্পীদের গড়ে তোলার দিকে একটু মন দিতে চাই এবং নতুন প্রজন্মকে অস্ট্রেলিয়ায় বাংলা গানে সাহায্য করতে চাই মন দিয়ে “।
সহযোগী একটি সংবাদ মাধ্যমের প্রশ্নের জবাবে মিতা বলেন, “ অস্ট্রেলিয়ায় বাঙালিদেরও তো বাংলার প্রখ্যাত শিল্পীদের গান শুনতে ইচ্ছে করে, আর এই যে গান শোনার ক্ষুধা আমাদের সিডনিবাসীদের, সেটা মেটানোর জন্যই আমরা মাঝে মাঝে বাংলাদেশ থেকে জনপ্রিয় শিল্পীদের নিয়ে অনুষ্ঠান করি।”
আতিক হেলাল ও আরফিনা মিতা দুজনেই আসন্ন ১০ সেপ্টেম্বরের সংগীতসন্ধ্যা নিয়ে ব্যস্ত এবং অনুষ্ঠানটি সফল করার জন্য সিডনির দর্শক শ্রোতাদের অনুষ্ঠানে আসার আমন্ত্রণ জানিয়েছেন।
‘গানে গানে জোছনার সিজন ৩’ অনুষ্ঠানের বেশিরভাগ টিকিট ইতিমধ্যে বিক্রি হয়ে গিয়েছে। এখনো যারা টিকেট সংগ্রহ করেননি তাদের টিকিটের জন্য  https://krazytickets.com ভিজিট করতে হবে।
0 0 votes
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments